বর্ধমান মেডিকেল কলেজের রাধারানী ওয়ার্ডের বেড ফাঁকা!

0
Advertisement

প্রবীর মন্ডল, পূর্ব বর্ধমান :- রাধারানী ওয়ার্ডের বেড ফাঁকা! বেসরকারি নাসিংহোম গুলিতে উপচে পড়ছে রোগীর ভিড়। যে রাধারানী ওয়ার্ডে রোগী ভর্তি করতে রীতিমত যুদ্ধ করতে হয় অনুনয়-বিনয় করে রোগীর পরিজন, সেই ওয়ার্ডে এখন ফাঁকা! নেই রোগী। শেষ কবে এমন দৃশ্য হাসপাতালে দেখা গিয়েছে মনে করতে পারছেন না চিকিৎসক থেকে স্বাস্থ্যকর্মীরা। শুধু রাজধানী নয় ইএনটি সার্জারি সর্বত্র ছবিটা কমবেশি প্রায় একইরকম। অন্যদিকে ঠিক বিপরীত চিত্র শহরের নার্সিংহোম গুলোয়। যেখানে পরিকাঠামো থাক না উপচে পড়ছে রোগীর ভিড়। বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেপুটি সুপার অমিত সাহা বলেন, “হাসপাতালে মোট বেডের সংখ্যা ১২৩৬। এর বাইরে আরও পাঁচ-সাতশো রোগী ভর্তি থাকেন। এখন সেখানে ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা হাজারো পার হয়নি। বর্ধমান মেডিকেল কলেজে বেড ফাঁকা রোগী নেই,এটা কোন দিন হয়নি। আমরা কিন্তু এই প্রতিকূলতার মধ্যেও জরুরি বিভাগে রোগী এলে ভর্তি করিয়ে নিচ্ছি।” সোমবার সপ্তম দিনে পা রাখে জুনিয়র ডাক্তারদের আন্দোলন। এদিন ও হাসপাতালের ধরনায় বসে ছিলেন জুনিয়র চিকিৎসকরা। গত ৭ দিনে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বহির্বিভাগ এর মাধ্যমে নতুন করে কোন রোগী ভর্তি হয়নি। কিন্তু বিপরীত ছবি নার্সিংহোম গুলোতে। সেখানে উপচে পড়ছে রোগীর ভিড়। সূত্রে খবর একটি ১৫ শয্যায় নার্সিংহোমে ৪৫ জন রোগী ভর্তি হচ্ছে। নার্সিংহোম গুলোর অনেকটা আউটডোরের ঢঙে রোগী দেখা চলছে। শহর মানুষের প্রশ্ন, এই নার্সিংহোম গুলো কিভাবে পরিষেবা দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা। বর্ধমান শহরের এক ব্যবসায়ী শুভেন্দু মুখোপাধ্যায় এর প্রশ্ন, বেসরকারি স্তরে কৃষ চিকিৎসকদের নিরাপত্তা কঠোর থেকে কঠোরতর করা হয়েছে? চিকিৎসকদের প্রণাম করতাম যদি বেসরকারি ক্ষেত্রে তারা বিনা পয়সায় রোগী দেখতে। সাধারণ মানুষদের প্রশ্ন,শহরের নামী চিকিৎসকরা হাসপাতালে মাইক ফুঁকে জুনিয়র ডাক্তারদের আন্দোলনে পাশে থাকার বার্তা দিয়ে গেলেন। আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার প্রেরণা যুগিয়েছেন তারাই।কিন্তু তারা ওই চিকিৎসকরা গত সাত দিনে তাদের ক্লিনিকে বসে রোগী দেখা বন্ধ করেননি এমনকি অস্ত্রপ্রচার ও করেছেন। এক ওষুধ বিক্রেতা ও জানান তাদের ব্যবসায় কোন সমস্যাই হয়নি আগেও যেভাবে রোগী এসেছেন এখনো সেই ভাবেই আসছেন। ডাক্তারের প্রেসক্রিপশনে যা লেখা আছে সেই মতন টেস্ট আমরা করছি। কাল অর্থাৎ মঙ্গলবার চিকিৎসকদের এই আন্দোলন তুলে নেওয়ার কথা। দেখা যাক কালকে পরিস্থিতি কি বলছে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

9 − 5 =