সানওয়ার হোসেন, রায়দিঘী :- বাড়ির পাশ থেকে যাওয়া বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে বাড়িতে আগুন লেগে সর্বস্ব হারালো এক পরিবার। ঘটনাটি ঘটে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার রায়দিঘী থানার নন্দকুমার পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মোহাম্মদ নগর গ্রামে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় গৌতম হুদাই, স্ত্রী দুই ছেলে কে নিয়েই তার সংসার। স্ত্রী ও এক ছেলেকে নিয়ে দিল্লি তে দিন মজুরের কাজ করে। কর্ম সূত্রে বিগত সাত বছর ধরে দিল্লিতে রয়েছে তারা। গ্রামের বাড়ি, ধান জমি ও ছিল কিছুটা যা দেখাশোনা করে তারই ছোট ভাই। ফেনীর সতর্কতায় ছোট ভাই লোকজন নিয়ে ধান তুলে ঘরের পাশেই গাদা দিয়ে। কিন্তু এদিন হঠাৎ বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়া বিদ্যুতের তার হাওয়াতে ছিঁড়ে ঘরের উপরে পড়ে আগুন লেগে যায়। স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে জল দিয়ে নেভাবার চেষ্টা করলেও হাওয়ার গতিতে নিমেষের মধ্যে ঘরে থাকা টিভি, ফ্রিজ, আসবাব পত্র জলের মেশিন সহ ধানের গাদা ভয়াবহ আগুন ছড়িয়ে পড়ে। বহু চেষ্টা করেও স্থানীয়রা আগুন আয়েত্রে আনতে পারেনি। খবর পেয়ে রায়দিঘি থানা থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী আসে ঘটনাস্থলে। গৌতম ও তার স্ত্রী এবং এক ছেলে দিল্লিতে থেকে কঠোর পরিশ্রমে সাত বছরে যা উপার্জন করে ছিলো, তাতেই তার আশা ছিল বাড়িতে এসে পাকা ঘর করবে। গৌতম এর ছোটো ছেলে নরেন্দ্র পুর হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করে। কাকার কাছে খবর পেয়ে আজ বাড়িতে আসে। বাড়িতে এসে বাড়ির দৃশ্য দেখে ভেঙে পড়ে। এই খবর পেয়ে রায়দিঘি থানার প্রশাসনসহ নন্দকুমার পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপপ্রধান দেখতে আসেন এবং গৌতম হুদার ছেলে কে সান্তনা দেন এবং পঞ্চায়েতের তরফ থেকে যাতে সাহায্য করা যায় সে ব্যাপারে আশ্বাস দেন। বর্তমানে খবর গিয়েছে দিল্লিতে দিল্লি থেকে গৌতম হুদাই ও স্ত্রী ছেলে আসার জন্য রওনা দিয়েছে বলে জানা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

six + 18 =