নিজস্ব প্রতিনিধি, বসিরহাটঃ- বসিরহাট মহকুমার ন্যাজাট থানার বেতনী নদীতে নৌকায় করে লোহার রড সহ অতিরিক্ত পণ্য বোঝাই করে নিয়ে একটি নৌকা ন‍্যাজাট থেকে কালিনগর ঘাটের দিকে যাচ্ছিল। সেই সময় নদীতে অতিরিক্ত জলের ঢেউ থাকার ফলে নৌকা কাত হয়ে যায়। নৌকোতে ছয়জন নদীতে পড়ে যায়। এরপর স্থানীয় বাসিন্দারা তাদেরকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদেরকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যায়।

পাশাপাশি নৌকার কাত হয়ে যাওয়ায় লোহার রড গুলি নদীতে পড়ে যায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ন্যাজাট থানার পুলিশ। ঘূর্ণিঝড়ের জন্য বন্ধ থাকার কথা ছিল ফেরি চলাচল। তাহলে কি প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে এই পণ্যবাহী নৌকাটি চলছিল? উঠছে প্রশ্ন। ইতিমধ্যেই নৌকা চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। সন্দেশখালি নেজাট ১ নম্বর ব্লকের কালিনগর কাছে তিনি নদীতে এক পণ্যবাহী জলের তরে ডুবে যায় নৌকায় মাঝি সহ ১০,জন নদীতে পড়ে যায় তারপর নদী সাঁতরে কোন রকমে রক্ষা পায় নৌকার যাত্রীরা এখনো কোনো নিখোঁজ নেইবসিরহাট মহাকুমার ন্যাজাট থানার বেদনি নদীতে নৌকায় করে লোহার রড সহ অতিরিক্ত পণ্য বোঝাই করে নিয়ে একটি নৌকা ন‍্যাজাট থেকে কালিনগর ঘাটে দিকে যাচ্ছিল সেই সময় নদীতে অতিরিক্ত জলের ঢেউ থাকার ফলে নৌকা কাত হয়ে যায়।

নৌকাতে আটজন নদীতে পরে যায় এরপর স্থানীয় বাসিন্দারা তাদেরকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদেরকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করা হয় পাশাপাশি নৌকার কাত হয়ে যাওয়ায় লোহার রড গুলি নদীতে পড়ে যায় বিষয়টা তদন্ত শুরু করেছে ন্যাজাট থানার পুলিশ ইতিমধ্যেই নৌকা চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসনের পক্ষ মাইকিং প্রচার চলছে।