সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- কোভিড পরিস্থিতির মধ্যে পুরসভার মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার পরও গত দেড় বছর যাবৎ ঝুলে রয়েছে পৌর নির্বাচন। যার ফলে পুরপ্রশাসক এর মাধ্যমে চালানো হচ্ছে এলাকার উন্নয়ন এর কাজ। বর্ষার মধ্যে পুর এলাকার নিকাশি ব্যবস্থার বেহাল দশা থেকে শুরু করে একাধিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে খামতি রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে টাকি পুরসভার প্রশাসকের বিরুদ্ধে।

এরই মধ্যে ২৮ লক্ষ টাকা ব্যয় করে টাকি পুরসভার পক্ষ থেকে কেনা হয়েছে বিলাসবহুল গাড়ি। তার ফলেই বৃহস্পতিবার পৌর প্রশাসক এর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তৃণমূল পরিচালিত পৌরসভার সামনে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূলের যুব সংগঠনের পক্ষ থেকে ।

পুর প্রশাসক সোমনাথ মুখার্জীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে টাকির এক যুব তৃণমূল নেতা বলেন, যে সময় বর্ষার জল সরার নিকাশি ব্যবস্থা সংস্কার করার অর্থ নেই পুরসভার কাছে বর্ষার জল বন্দী অবস্থায় থাকতে হচ্ছে বাসিন্দাদের সেই সময় ২৮ লক্ষ টাকা খরচ করে গাড়ি কেনার কোন কারণ দেখছি না। তারই প্রতিবাদে আমাদের এই বিক্ষোভ।

এদিনের বিক্ষোভের ফলে সামনে চলে আসে টাকি পুরসভা এলাকার তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। যদিও গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের বিষয়টি উড়িয়ে দেন টাকি পুরসভার পুর প্রশাসক সোমনাথ মুখার্জী। গাড়ি কেনার বিষয়ে উল্লেখ করে তিনি জানান পুরনো গাড়িটি খারাপ হয়ে যাওয়ায় সেটিকে রিপ্লেস করে নতুন গাড়ি কেনা হয়েছে। এর সঙ্গে উন্নয়ন না করার কোন বিষয় নেই বলে উল্লেখ করে। খুব শিগগিরই টাকি পৌরসভা এলাকার উন্নয়নের কাজ শুরু করা হবে বলে জানান তিনি।

এই বিষয়ে বসিরহাটের দক্ষিণের বিধায়ক ডাঃ সপ্তসী ব্যানার্জী বলেন, বিক্ষোভের কথা আমি শুনেছি। তবে কি কারণে এই বিক্ষোভ হয়েছে পুরসভার প্রশাসকের কাছে শুনে আপনাদের জানাবো।