পুজোতে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বাড়িতে দেখা করে ওনার হাতে কিছু বই ও অন্যান্য উপহার তুলে দিলো গঙ্গাসাগরের জগদীশ চন্দ্র মন্ডল ইনস্টিটিউট অফ এডুকেশনের পরিচালক ও তার দুই সঙ্গী

0

নিজস্ব সংবাদদাতা :- দুর্গা উৎসব বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব হলেও এখন সেটা বাঙালির না প্রত্যেক জাতি এই উৎসবে মেতে ওঠেন। এই উপলক্ষে বীরভূমের উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন গঙ্গাসাগরের জগদীশ চন্দ্র মন্ডল ইনস্টিটিউট অফ এডুকেশন এর পরিচালক অতনু মন্ডল ও তার দুই সঙ্গী আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সুভাষ হালদার এবং সাংবাদিক সানওয়ার হোসেন। অষ্টমীর দিন ভারত রত্ন পাপক প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির বাড়িতে হাজির হলেন। এসে প্রণব বাবুর বাড়ির পুজো দেখলেন। পুজোর শেষে প্রণব বাবু অসুস্থ বোধ করেন, এর ফলে ওইদিন সাক্ষাৎ হয়নি।
যেহেতু অষ্টমীর দিন দেখা হয়নি তাই নবমীর দিন সকাল সকাল আবার হাজির হলেন মুখার্জি বাড়িতে। ওইদিন নিরাপত্তা জোরদার ছিল। অযথা কাউকে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না। শোনা গেলো প্রণববাবু মন্দিরে চন্ডীপাঠ করবেন কিন্তু অসুস্থ ও মন্দিরে প্রচুর ভিড় থাকায় তিনি অন্দর মহলেই চন্ডীপাঠ করেন। তারপর বাইরে এসে বসেন, তাঁর সামনে কুমারী পূজা হতে দেখলেন। আবার প্রণব বাবুকে হাত ধরে ভিতরে নিয়ে গেলেন।
অতনু বাবু জানান এতো আশা নিয়ে আসার ফলে মনটা খারাপ হয়ে যায়, তবে কি দেখা হবে না? কিন্তু ভাগ্যক্রমে কোন এক জনের মারফত খবর পাঠানো হয় গঙ্গাসাগর থেকে কেউ এসেছে দেখা করতে চায়। সৌভাগ্য বসত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির সাথে দশ মিনিটের মতো আলাপ চারিতা হয়।অসুস্থ থাকার কারণে বেশিক্ষণ কথা বলতে পারেননি ৮৪ বছর বয়সী ভারত রত্নে সন্মানিত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি। ওনার হাতে কিছু বই ও অন্যান্য উপহার তুলে দেওয়া হয়, উনি অত্যন্ত খুশি মনে তা গ্রহণ করলেন। তিনি আশীর্বাদ করলেন এবং পুএ অভিজিৎ মুখার্জি কে দায়িত্ব দেন খাবার ব্যবস্থা করার এবং কথা বলার জন্য। স্থানীয় মানুষ দের কাছ থেকে তারা জানেন যে দূর্গা পূজো এলেই বাড়ি খোলা হয় নয়তো সারা বছর বাড়ি ফাঁকাই থাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

three + 19 =