সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- পীর গোরাচাঁদ এর মেলার উদ্বোধন করেন বসিরহাটের সংসদ নুসরাত জাহান। হাড়োয়ার মাজমপুর মাঠে মঙ্গলবার রাত ন’টা নাগাদ পীর গোরাচাঁদ এর মেলার উদ্বোধন হয়। হাড়োয়া ব্লক যুব তৃণমূল সভাপতি আব্দুল খালেক মোল্লার উদ্যোগে এই মেলার এই মেলার উদ্বোধন হয়। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা দিতে এই মেলার আয়োজন করা হয়।

এই মেলায় খাবারের শতাধিক স্টল বসেছে অপরদিকে মনোরঞ্জনের জন্য নাগরদোলা, দোলা সহ বিভিন্ন ধরনের স্টল বসেছে। এদিন থেকেই এই মেলা শুরু হয়েছে চলবে আগামী পাঁচ দিন ধরে। এই মেলায় আনন্দ উপভোগ করার জন্য বহু দূর দূরান্ত থেকে কয়েক হাজার মানুষেরা উপস্থিত হয়েছে। করণা প্রবাহ একগুচ্ছ সতর্কতা অবলম্বন করছে মেলা কমিটির পক্ষ থেকে। এই মেলায় আগত মানুষের নিরাপত্তার কথা ভেবে মেলা প্রাঙ্গণে চারিদিকে লাগানো হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা।মেলার পাঁচদিন বিভিন্ন ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে এই মেলা কমিটির পক্ষ থেকে।

মঙ্গলবার এই মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মিনাখাঁর মোহন পুর অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি যোগেশ্বর প্রামাণিক। এই মেলা উদ্বোধন করতে এসে সাংসদ নুসরাত জাহান বলেন ১৫ লক্ষ টাকার মিথ্যে স্বপ্ন দেখাবে ওরা। আর ৫ লক্ষ টাকার স্বাস্থ্য সাথী কার্ড দেবো আমরা। তাই বলি এই একুশের খেলা হবে খেলা হবে। এছাড়াও বাদুড়িয়া বাঁশি রুপালি পর্দার নায়িকা এবং বসিরহাটের সাংসদ কে পেয়ে দু’কুলি গান শোনার আবদার করে বসলেন দর্শকের কথা ফেলতে পারলেন না সংসদ নুসরাত জাহান তাদের উদ্দেশ্যে গেয়ে উঠলেন তোকে নিয়ে ঘুরতে যাব একশ বিন্দাবন, আমি আর অন্য কিছু মুডে নেই এখন। দর্শকের আনন্দে আত্মহারা হাততালিতে ফেটে পড়ে মেলা প্রাঙ্গণ।

মেলা দেখতে আসা আমির হোসেন জানান, একাধিক উন্নয়ন করেছেন আমাদের সংসদ তাই ওনাকে কাছে পেয়ে মেলা দেখতে আসা গ্রামবাসীদের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয় গানের। সবাই কেমন আছেন সেও খোঁজখবর নিয়েন ভীষণ খুশি যে আমাদের সংসদ সাধারণ মানুষের কথা শুনছে প্রত্যেকটা গ্রামে এসে।

এই বিষয়ে বসিরহাট বিজেপি যুব সভাপতি পলাশ সরকার জানান, টিএমসি শুধু খেলা মেলা নিয়ে ব্যস্ত। গ্রাম গঞ্জের সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষেরা কিভাবে উন্নয়ন হবে সেই কথা একবার ভাবার সময় নেই । শুধু মেলা উদ্বোধন করার জন্য বসিরহাটে দেখা যায় সাংসদকে। রাস্তাঘাটে দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় খানাখন্দে ভরে গেছে কি ভয়ানক সমস্যা প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে সাধারণ মানুষ একটা বার ওই সমস্ত রাস্তার মেরামতির কথা ভাবেন না আমাদের বসিরহাটের সাংসদ। শুধু ব্যস্ত হয়ে পড়েছে মেলা উদ্বোধনের জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

ten + 4 =