সনাতন গরাই, দুর্গাপুর :- গত দেড় বছর আছে একটি হাতি দলছুট হয়ে যায় পানাগড়ের জঙ্গলে। তারপর সেনা ছাউনির গভীর জঙ্গলে ঢুকে যাওয়ায় খোঁজ মেলেনি হাতিটির। শেষমেষ বুধবার সেনা ছাউনির ভেতর একটি পরিত্যক্ত কুয়োর পরে যায় হাতিটি। সেই হাতিটির আওয়াজ শুনে সেনা জওয়ানরা এসে দেখে হাতিটি পরে আছে। তারপর তারা বনদপ্তরকে খবর দিলে বনদপ্তর আসে এবং ঘুমের গুলি দিয়ে হাতিটিকে কুয়ো থেকে উদ্ধার করে ক্রেনের মাধ্যমে।

বনদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, হাতিটি দলছুট হয়ে যাওয়ায় মানসিক অবসাদে ভুগছিল। দীর্ঘদিন ধরে একা থাকার ফলে শারীরিক অবস্থাও খারাপ হয়ে যায়। বুধবার সেনাছাউনির কুয়োর মধ্যে পড়ে যাওয়ায় অত্যাধিক আঘাতে জখম হয়ে যায়। হাতিটিকে উদ্ধার করে বনদপ্তর তার নিজস্ব গন্তব্যে ঝাড়গ্রামের জঙ্গলে নিয়ে যাওয়ার সময় বাঁকুড়ার কাছে মৃত্যু হয় ওই হাতিটির।বনদপ্তর সূত্রে জানা গেছে ঘুমের গুলিটিতে হাতিটি আরো বেশি জখম হয়ে যায়।তবে কি কারণে মৃত্যু হয়েছে ময়নাতদন্তের পর ঠিক জানা যাবে।