পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবে নাঃ- সৌগত রায়

0
Advertisement

অলোক আচার্য, নিউবারাকপুর :- পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবে না। জাতীয় নাগরিকপজ্ঞি আসামে চালু হলেও বাংলায় হবে না। বিজেপি বলছে পরিবর্তন চাই পশ্চিমবঙ্গে। সুপ্রিম কোর্টের কাছে কোন অর্ডার নেই। রাজ্য সরকার তৈরি। পশ্চিম বাংলায় মমতা আছে। ভাববার কোন কারন নেই। চালু হলে সর্বনাশ হবে ৭১ এর ২৫শে মার্চের আগে যারা এসেছেন। তাদের বৈধ কাগজপত্র নিয়ে হিংসার রাজনীতি হবে। জনগণের মধ্যে ভয় ভীতি সঞ্চার হবে। উদ্বাস্তু অধুষ্যিত এলাকায় ভীষন গুরুত্বপূর্ণ। বিজেপির এনআরসির বিরুদ্ধে সংঘবদ্ধ ভাবে সচেতন হতে হবে সকলকে।

এলাকায় সাধারণ মানুষকে এনআরসির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে সচেতন করতে হবে দলীয় কর্মীদের। কথাগুলি বলেন দমদম লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ অধ্যাপক সৌগত রায়। রবিবার নিউ বারাকপুর শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের মিলনউৎসবে স্হানীয় কৃষ্টি প্রেক্ষাগৃহে উপস্হিত হয়ে কথাগুলি বলেন সংসদ। বিজেপি কে আক্রমণ করে সাংসদ বলেন ভারতবর্ষে বেকারী বেশি করে তুলছে। শিল্প কলকারখানায় ভীষন মার খাচ্ছে। আগামী ২০২০পৌরনির্বাচনে এবং ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমৃল কংগ্রেসই থাকবে। মমতার বিকল্প কোন নেতা নেই। বিজেপি চেষ্টা করছে। রাস্তায় নামছে। তৃণমৃল না থাকলে পশ্চিমবঙ্গে অনেক ক্ষতি হবে। কর্মীদের সংঘবদ্ধ ভাবে একসাথে এগিয়ে চলুন। দলকে শক্তিশালী করুন। দেশকে সমাজকে ভালোবাসুন। গত লোকসভায় নিউ বারাকপুরে মতুয়ারা মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছেন। বিজেপি সিপিএমকে ভোট বিক্রি করে দিয়েছে। বিজেপি টাকা দিয়ে সিপিএমের ভোট ট্রান্সফার করেছে। দলকে অতীত থেকে শিক্ষা নিতে হবে বলেন সাংসদ। ওয়ার্ড ও বুথ ভিত্তিক ভোট পর্যালোচনা করতে হবে। পৌর উন্নয়নে সব ওয়ার্ডে সমান ভাবে হয়েছে না কি অসমান হয়েছে ওয়ার্ডে। ভাবত হবে। কাউকে দোষ দিতে হবে না। মানুষের ভোটটা নিশ্চিত করতে হবে। উপস্হিত ছিলেন নিউ বারাকপুর পুরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরগন। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন সারেগামাপা খ্যাত সংগীত শিল্পী দ্বীপায়ন বন্দ্যোপাধ্যায়। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করেন ও সঞ্চালনা করেন নিউবারাকপুর শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি সুমন দে। উপস্হিত ছিলেন দমদম পুরসভার উপ পুরপ্রধান বরুণ নট্ট ও জেলা তৃণমৃল যুব কংগ্রেসের সহ সভাপতি জয়দীপ দাস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

seven + nineteen =