অলোক আচার্য, নিমতা :- মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিমতার ঠাকুরতলায় খুন হলেন তৃণমূল নেতা। জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধেয় পাড়ার মুখে দাঁড়িয়েছিলেন উত্তর দমদম পুরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল সভাপতি নির্মল কুণ্ডু। ঠিক তখনই বাইকে চড়ে আসে দুই দুষ্কৃতী। নির্মলবাবুর মাথা লক্ষ্য করে গুলি চালায় তারা। তাঁকে সঙ্গে সঙ্গে বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নির্মল কুণ্ডুকে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসকরা।
এই খুনে পুলিসের হাতে উঠে এসেছে খুনের ঘটনায় জড়িত দুই সন্দেহভাজনের নামও। জানা গিয়েছে, ৪ বছর আগে সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলের যোগ দিয়েছিলেন নিহত তৃণমূল নেতা নির্মল কুণ্ডু। তৃণমূলের যোগদানের পর বেশ কয়েকবার নিমতা এলাকার ত্রাস লাল্টু ও বিল্টুর সঙ্গে ঝামেলা হয় নির্মলের। পরে কিছু মামলায় লাল্টু ও বিল্টুকে গ্রেফতার করে পুলিস।
জানা গিয়েছে, কিছুদিন আগেই জেল থেকে ছাড়া পেয়েছে লাল্টু ও বিল্টু। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিসের অনুমান, এই ঘটনার পিছনে লাল্টু, বিল্টুরও হাত থাকতে পারে। পুরনো শত্রুতার জেরে এই খুন বলে মনে করা হচ্ছে। বুধবার সকাল থেকেও থমথমে হয়ে রয়েছে পরিবেশ। এলাকায় পুলিস পিকেট বসানো হয়েছে।