অলোক আচার্য, নিউ বারাকপুরঃ- নিউ বারাকপুরের প্রয়াত তৃণমূল কর্মী রামকৃষ্ণ (বুড্ডু) সাহার স্মৃতির উদ্দেশ্যে স্মরণে রবিবার শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের উদ্যোগে রবিবার স্থানীয় সতীনসেন নগর মহাজাতি পরিষদ প্রাঙ্গণে হ’ল আমন্ত্রণ মূলক দিবা- রাত্রি ব্যাপি এক বিরাট ১৬ দলের নকআউট পর্যায়ে ক্রিকেট প্রতিযোগিতা। সকালে শান্তির প্রতীক সাতটি পায়রা উড়িয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্রিকেট প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করেন আই এফএ প্লেয়ার স্ট্যাটাস কমিটির সদস্য তথা টিকিট ডিস্ট্রিবিউশন কমিটির চেয়ারম্যান ক্রীড়া সংগঠক সুখেন মজুমদার ও পুরসভার মুখ্য প্রশাসক প্রবীর সাহা।

শুরুতে দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং প্রয়াত রামকৃষ্ণ সাহার প্রতিচ্ছবিতে মালা ও ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ক্রীড়া সংগঠক সুখেন মজুমদার সহ পুরসভার প্রশাসক ও উপস্থিত বিশিষ্ট জনেরা। ৫ ওভারের খেলা। প্রতি দলে মোট ৯ জন। এবং অতিরিক্ত দু জন। নববারাকপুর এবং পার্শ্ববর্তী মধ্যমগ্রাম এলাকার ক্রীড়া সংস্থা অংশগ্রহণ করে ক্রিকেট প্রতিযোগিতায়।

খেলা চলাকালীন মাঠে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, সাংসদ সৌগত রায়, জেলা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি দেবরাজ চক্রবর্তী, যুব তৃণমূল কংগ্রেসের বানীব্রত চক্রবর্তী, প্রদেশ তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি সম্রাট তপাদার, পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য জয়গোপাল ভট্টাচার্য, নির্মিকা বাগচী, প্রাক্তন পুরপ্রধান তৃপ্তি মজুমদার সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের কোঅর্ডিনেটরা ও কয়েক হাজার মানুষ।

চ্যাম্পিয়ন দল এবিসিডি দলের হাতে সুদৃশ্য ট্রফি ও নগদ আর্থিক পুরস্কার তুলে দেন শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি তথা পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য সুমন দে। রানার্স দল স্ট্রেন্থ দলের হাতে সুদৃশ্য ট্রফি ও নগদ আর্থিক পুরস্কার তুলে দেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সদস্যরা। ফাইনাল খেলা শেষ হতে সোমবার ভোর হয়ে যায়। টানটান উত্তেজনা ফাইনালে ৪ ওভারের খেলায়। ম্যাচ ড্র হয়ে যাবার পরও শেষে টসে খেলার নিষ্পত্তি হয়। ম্যান অফ দ্য ম্যাচ তনু দে পায় বিশালাকার এলইডি টিভি। খেলোয়াড় দের আকর্ষণীয় পুরস্কার ছিল দেখার মতো।

নিউ বারাকপুর শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কর্মীবৃন্দ অক্লান্ত পরিশ্রম করে সফলতা আনে এই একদিনের দিন রাতের ক্রিকেট টুর্নামেন্টের। সমগ্র খেলাটি সুষ্ঠু ভাবে পরিচালনা করেন যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সুমন দে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত খেলা কে ঘিরে মানুষের উদ্দীপনা ছিল চোখে পড়ার মতো।