অলোক আচার্য, নিউ বারাকপুরঃ- জেলা জুড়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। বাড়ছে অক্সিজেন পার্লার। বিভিন্ন ক্লাব সংগঠন গুলি এই করোনা অতিমারি মোকাবিলায় মানুষের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে এসে পাশে দাঁড়িয়ে সামাজিক দায়বদ্ধতা পালনে রবিবার বিকেলে নিউ বারাকপুর পুরসভার ৬নং ওয়ার্ডের সেবায়ন উদ্যোগে চালু হল পাঁচ শয্যার অক্সিজেন পরিষেবা কেন্দ্র। ৬নং ওয়ার্ডের মিনি ইনডোর কাম কমপ্লেক্স উদ্বোধন হল ২৪ ঘন্টার সর্বসাধারণের অক্সিজেন পরিষেবা কেন্দ্রে ।উদ্বোধন করেন রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।

উপস্থিত ছিলেন সাংসদ সৌগত রায়, পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য প্রবীর সাহা, কোঅর্ডিনেটর জয়গোপাল ভট্টাচার্য, মনোজ সরকার, ডাঃ পংকজ কুমার অধিকারী, সমাজসেবী সুমন দে, কোঅর্ডিনেটর নির্মিকা বাগচী সহ, ইন্ডিয়ান আর্ট কলেজের অধ্যক্ষ দেবাশিস মিত্র সহ বিশিষ্ট জনেরা।

সৌগত রায় বলেন, করোনা অতিমারি মোকাবিলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারীরিক দুরত্ব বজায় রেখে সকলেই মাস্ক পরে স্যানিটাইজার করুন। অক্সিজেন পার্লারে মানুষ যেন সঠিক পরিষেবা পায় সেদিকে নজর রাখবেন অপব্যবহার যেন না হয়। চিকিৎসকদের পরামর্শ নেবেন। ডাঃ পংকজ কুমার অধিকারী কে কুর্নিশ জানান সৌগত রায়। তিনি নব বারাকপুরে ২৪ ঘন্টার পরিষেবা দিচ্ছেন। এদিন করোনা অতিমারি মোকাবিলায় গ্রীষ্মকালীন রক্ত সংকটে কৃতজ্ঞতা ভ্রাম্যমাণ রক্তদান শিবির কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। সহযোগিতায় নিউ বারাকপুর পুরসভার ৮টি ক্লাব সংগঠন এগিয়ে আসে।

অপরদিকে নিউ বারাকপুর পুরসভার ১২ নং ওয়ার্ডের জাগৃতি সংঘ ও কল্যাণ সংঘের যৌথ উদ্যোগে রবিবার বিকেলে স্থানীয় জাগৃতি সংঘের প্রাথমিক বিদ্যালয় গৃহে দুই শয্যার অক্সিজেন পরিষেবা কেন্দ্রে উদ্বোধন করেন রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। উপস্থিত ছিলেন পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য প্রবীর সাহা, মিহির দে, ডাঃ পংকজ কুমার অধিকারী, ডাঃ তীর্থঙ্কর সরকার সহ এলাকার অধিবাসীবৃন্দ।নব নির্বাচিত বিধায়ক ও রাজ্যের তিনটি দপ্তরের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য কে সংবর্ধিত করা হয় দুটি সংঘের পক্ষ থেকে।