সানওয়ার হোসেন, নরেন্দ্রপুর :- নরেন্দ্রপুর থানায় সি. সি. টিভি ক্যামেরা সহ কন্ট্রোল রুমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হলো আজ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এস.পি. রসিদ মুনির খান ও লোকসভার সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সোনারপুর উত্তর বিধানসভার বিধায়ীকা ফিরদাউসি বেগম ও দক্ষিন বিধানসভার বিধায়ক জীবন মুখোপাধ্যায় সহ আরো অনেকহত বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

উপস্থিত ছিলেন নরেন্দ্রপুর থানার আই সি। তিনি বলেন মূলত বিধায়ীকা ও সাংসদ এর অনুদানে এই উদ্যেগ। আগমি দিন এই কনট্রল রুম এর মাধ্যমে অনেক অসামাজিক কাজ রোধ করা সম্বব হবে।

এরপর সাংসদ মিমি চক্রবর্তী বলেন যে নরেন্দ্রপুর ও সোনারপুর থানার কাজের সুবিধার্থে তিনি সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপন করার জন্যে প্রায় 25লক্ষ্য টাকা বরাদ্দ করেছেন। তিনি আরো বলেন যে তিনি জানেন যে কোথায় প্রবলেম হচ্ছে? কোন রাস্তায় সমস্যা আছে? তিনি জানেন আগামীদিন সেগুলির জন্য বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে চলেছেন। এরপর বলেন তিনি যে বিপুল পরিমান ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি সেই প্রতিটা ভোটকে সম্মান করেন। সকলের সাহায্য যদি উনি পান আগামীদিন আরো অনেক কিছু করার ইচ্ছে তার আছে।

এরপর সাংসদ মিমি চক্রবর্তী ও এস. পি. রাসিদ মুনির খান কন্ট্রোল রুমের উদ্বোধন করেন। সাথে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির অনুপ্রেরণায় এই বছর যে ক্লাব গুলিকে চেক দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার তা প্রশাশনের মাধ্যমে সমপন্য হলো

১৪ ই নভেম্বর ২০১৮ সালের সোনারপুর থেকে পাঁচটি অঞ্চল নিয়ে নরেন্দ্রপুর থানা গঠিত হয়েছিল। নবনির্মিত নরেন্দ্রপুর থানার তরফ থেকে জানানো হয় এই মুহূর্তে ১৩০ টি সিসিটিভি চালু করা হলো।পুজোর পর মোট ৫৮০ টি সিসিটিভি চলবে এবং তার কন্ট্রোল করবেন নরেন্দ্রপুর ও সোনারপুর থানা। বিধায়ক ও সংসদীয় তহবিল থেকে সিসি টিভির কন্ট্রোল রুমের অর্থ ব্যয় করা হয়েছে ২৫ লক্ষ টাকা।