অলোক আচার্য, নিউ বারাকপুরঃ- দুর্গোৎসবের আগে সকল মানুষের টিকাকরণ করিয়ে দিতে বদ্ধপরিকর নিউ বারাকপুর পুরসভা। সেই লক্ষ্যে পূরণে জোরকদমে শহর জুড়ে চলছে দুয়ারে টিকাকরণ। দুয়ারে ভ্যাকসিনের পাশাপাশি রেল লাইন ধারে বসবাসকারী মানুষদের মোবাইল টিকাকরণ চালু করল নিউ বারাকপুর পুরসভা। নিউ বারাকপুর থেকে বিশরপাড়া রেল স্টেশনের মধ্যে রেললাইন ধারে বসবাসকারী মানুষদের মোবাইল টিকাকরণ কর্মসূচি চালু হল মঙ্গলবার।

রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের নির্দেশে নিউ বারাকপুর পুরসভার ব্যবস্থাপনায় মঙ্গলবার সকালে পুরসভার ৩ ও ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের স্থানীয় ৪ নং ওয়ার্ডের ওয়ার্ড কমিটির কার্যালয়ে, এক্সিস ব্যাঙ্কের মোড় প্রভা এপার্টমেন্টে এবং স্টেশন সংলগ্ন অনুভব ভবনের দ্বিতলে টিকাকরণ দেওয়া হল প্রায় সাত শতাধিক মানুষ কে।

উপস্থিত ছিলেন পুরসভার মুখ্য প্রশাসক প্রবীর সাহা, নোডাল অফিসার দেব প্রসাদ রাহা, প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য সুমন দে, কোঅর্ডিনেটর পূর্নিমা রায়, চিত্রকর দেবাশিস মিত্র সহ পুরসভার কোভিড টিমের স্বাস্থ্য কর্মীরা চিকিৎসকরা ।পুরসভার মুখ্য প্রশাসক প্রবীর সাহা জানান সোমবার থেকে শুরু হয়েছে দুয়ারে ভ্যাকসিন। পুরসভার ১ থেকে ১২ নং ওয়ার্ডের নাগরিকরদের টিকাকরণ দেওয়া হয়। মঙ্গলবার ১৩ থেকে ২০ নং ওয়ার্ডের তিনটি বিদ্যালয়ে দুটি অনুষ্ঠান ভবন ও কৃষ্টি প্রেক্ষাগৃহে প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ টিকা দেওয়া হয় ।স্বভাবতই এলাকাবাসী খুশি। সহজেই বিশাল লাইনে না দাঁড়িয়ে মানুষ তার বাড়ির সামনে বিদ্যালয়ে বা নির্দিষ্ট স্হানে গিয়ে টিকাকরণ দিলেন।

নব বারাকপুর শহরে ইতিমধ্যেই লক্ষাধিক মানুষ টিকা পেয়েছেন প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ। আট হাজার ভ্যাকসিন দিলে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হবে। মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত পুরসভার ৩ ও ৪ নং ওয়ার্ডের রেললাইন ধারে বসবাসকারী মানুষদের মোবাইল টিকাকরণ দেওয়া হয়। বুধবার আরো তিনটি ওয়ার্ডের (১৩,১৭ ও১৮) মানুষ দের ভ্রাম্যমান টিকাকরণ দেওয়া হবে। এরপর নোয়াই খাল পাড়ে মানুষদের ও টিকাকরণ দেওয়া হবে। নববারাকপুর শহরের ৭৫ উদ্ধে এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে টিকাকরণ দেওয়া র পরিকল্পনা রয়েছে।

রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের ঐকান্তিক নির্দেশে এই বিশেষ ভ্রাম্যমান টিকাকরণ কর্মসূচি চালু হল। এলাকার মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো। স্বাস্থ্যকর্মীরা কখনো বাড়ি গিয়ে কখনোও বা ভ্রাম্যমান গাড়িতে করে টিকাকরণ দেওয়া তে মানুষ খুশি পুর পরিষেবায়।পুজোর আগেই পুরসভা শহরের সকল নাগরিকদের টিকাকরণ করে দিতে বদ্ধপরিকর। সেই লক্ষ্যে জোরকদমে চলছে দুয়ারে ভ্যাকসিন ।