অলোক আচার্য, নিউ বারাকপুরঃ- শারদীয়া উৎসবের প্রাক্কালে নব বারাকপুরে ৭ নং ওয়ার্ডের সত্তরোর্ধ্ব প্রবীণ নাগরিকদের এবং ছোট ছোট শিশু-কিশোরদের নতুন বস্ত্র প্রীতি উপহার তুলে দিলেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য ও সাংসদ সৌগত রায়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুরসভার ৭নং ওয়ার্ডের পশ্চিম মাসুন্দা বিবেক ভবন তৃণমূল কার্যালয়ের সামনে অস্থায়ী প্রাঙ্গণে।

মন্ত্রী বলেন, পুরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কোঅর্ডিনেটর মনোজ কুমার সরকার খুব ভালো কাজ করল প্রবীণ ও নবীনের সমন্বয় মেল বন্ধন তুলে ধরল। প্রবীণরাই নবীনদের পথ দেখাবে। এলাকার মহিলারা ও অংশগ্রহণ করেছে। ভাল লাগছে।

সাংসদ সৌগত রায় বলেন, এই ওয়ার্ডের কোঅর্ডিনেটর মনোজ সরকার মহৎ কাজ করছে। কাল মহালয়া। তার আগে এলাকায় ছোট শিশু দের জামা এবং প্রবীণ মানুষ দের সম্মানিত করছে। এর চেয়ে ভালো কাজ কিছু হতে পারে না। যদিও বিধানসভা ভোটে পিছিয়ে ছিল। সাংসদ প্রস্তাব রাখেন যোগদান পালা করবার জন্য। মতুয়াদের ভোট ব্যঙ্ক তৃনমূলের যাবার যোগদান সভা করবার জন্য বলেন সাংসদ। এলাকার মানুষের সঙ্গে বেশি করে জনসংযোগ রাখতে বলেন।

উপস্থিত ছিলেন পুরসভার মুখ্য প্রশাসক প্রবীর সাহা, কোঅর্ডিনেটর পূর্নিমা রায়, নিখিল মালো, এপিসি কলেজের ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক সুমন দে, সুশান্ত হালদার, গৌরাঙ্গ দত্ত, ইতু দত্ত, আভা মজুমদার, প্রমুখ। এদিন ৭নং ওয়ার্ডের এলাকার শতাধিক প্রবীণ মানুষদের সম্মাননা স্মারক, উত্তরীয়, পুষ্প স্তবক, মিষ্টি এবং নব্বই জন ছেলে মেয়েদের জামা ও মিষ্টি তুলে দেওয়া হয়।

মুখ্য প্রশাসক প্রবীর সাহা বলেন, প্রাক শারদীয়া উৎসবের প্রাক্কালে গুণীজনদের সংবর্ধিত করতে পেরে আমরা নিজেরা গৌরবান্বিত হলাম। পুজো সকলের ভালো কাটুক। প্রীতি শুভেচ্ছা রইল। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা ও সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন নব বারাকপুর পুরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কোঅর্ডিনেটর তথা তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভাপতি মনোজ সরকার ।