অলোক আচার্য, নববারাকপুরঃ- জাতীয় কবি, দার্শনিক, সঙ্গীতঞ্জ ও সমাজ সংস্কারক কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩ তম জন্মদিন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকালে নববারাকপুর পুরসভার উদ্যোগে পুরসভার ১৫নং ওয়ার্ডে হরিপদ বিশ্বাস সরণি স্থিত নজরুলের মর্মর মূর্তিতে মাল্যদান ও পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন করে শ্রদ্বার্ঘ জানান পুরসভার পুরপ্রধান প্রবীর সাহা, কাউন্সিলর হৃষিকেশ রায়, দেবাশিস মিত্র, বেবি চক্রবর্তী, সুদীপ ঘোষ, পুরসভার হেডক্লার্ক সজল নন্দী মজুমদার, আন্তর্জাতিক চিত্রশিল্পী দেবব্রত দে, হরিপদ বিশ্বাসের কনিষ্ঠ পুএ দীপক বিশ্বাস সহ পুরসভার কর্মীবৃন্দ ও স্থানীয় ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীবৃন্দরা।

পুরপ্রধান প্রবীর সাহা বলেন, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ আমাদের মননে। ঠিক তেমনি জাতীয় কবি নজরুল ইসলাম ও বাঙালির মননে রয়েছেন। তার লেখা কবিতা গান স্মরণ করে। সেই ১৮৯৯ সালের ১১ জৈষ্ঠ কাজী নজরুলের জন্মদিনে পুরসভার পক্ষ থেকে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানাতে পেরে আমরা গর্বিত ও আনন্দিত। পুরসভার বোর্ড মিটিং সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বিভিন্ন মনীষীদের জন্মদিন পালন করা হবে পুরসভা এলাকায়। সেই মোতাবেক বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মদিন পালন করা হল।

১৫নং ওয়ার্ডের নজরুলের মর্মর মূর্তিতে মালা ও ফুল দিয়ে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানান হল। জাতীয় কবি হিসেবে কবির গান মোরা একবৃন্তে দুটি কুসুম হিন্দু মুসলমান। আবার গাইলেন গাহি সাম্যের গান। সবমিলিয়ে বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথের মতো কাজী নজরুল ইসলাম আজও প্রাসঙ্গিক। তার রচনা লেখা গান কবিতা নাটক। শেষে জাতীয় সঙ্গীতের মধ্যে দিয়ে সংক্ষিপ্ত শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠান সমাপ্তি হয় এদিন।