অলোক আচার্য, নববারাকপুরঃ- রাজ্যের সরকারি প্রাক প্রাথমিক এবং সরকারি সাহায্য প্রাপ্ত বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত বিদ্যালয়ের পোষাক তৈরি করল পুরসভার ও পঞ্চায়েত স্তরের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নববারাকপুর পুরসভার রাজ্য নগর জীবিকা মিশনের অধীনে স্বনির্ভর গোষ্ঠী দ্বারা প্রস্তুত ৩৮ টি সরকারী ও সরকারি সাহায্য প্রাপ্ত বিদ্যালয়ের প্রাক প্রাথমিক থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত মাথা পিছু ১০ জন করে মোট ৩৫০ জন পড়ুয়াদের পোষাক বিতরণ করা হল কৃষ্টি প্রেক্ষাগৃহে। নববারাকপুর পুরসভার রাজ্য নগর জীবিকা মিশনের স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের দ্বারা প্রস্তুত পুর এলাকার প্রাক প্রাথমিক থেকে সরকারি বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ুয়াদের হাতে নীল প্যন্ট ও সাদা জামা পোষাক তুলে দিলেন নববারাকপুর পুরসভার পুরপ্রধান প্রবীর সাহা, উপপুরপ্রধান স্বপ্না বিশ্বাস, পানিহাটি সার্কেলের বিদ্যালয় পরিদর্শক সুদেষ্ণা চন্দ্র সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের পুর প্রতিনিধি ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সহ শিক্ষক শিক্ষিকারা।

নববারাকপুর পুরসভার পুরপ্রধান জানান, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের ঐকান্তিক উদ্যোগে নববারাকপুরে প্রাক প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির পর্যন্ত ৭১০২ জন পড়ুয়াদের বিদ্যালয়ের পোষাক বিতরণ করা হবে। বৃহস্পতিবার নমুনা হিসেবে প্রাক প্রাথমিক ২৭ টি এভং ১১ টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির কমবেশি ৩৫০ জনের হাতে এক সেট পোষাক বিলি করা হল। পুজোর আগেই দু’সেট করে পোষাক সকল বিদ্যালয়ের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানান পুরপ্রধান।

পুরসভার ২০ টি ওয়ার্ডের এরিয়া লেভেল এসইউএলএম দপ্তরের ১০১ জন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা খুব দায়িত্ব সহকারে প্রশিক্ষণ নিয়ে বিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের পোষাক তৈরী করেছে। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা আরো বেশি একধাপ এগিয়ে গিয়ে স্বাবলম্বী হল এর ফলে।সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন পুরসভার এনইউএলএম দপ্তরের সিটি ম্যানেজার ড. তপন কুমার জানা।পড়ুয়ারা পোষাক পেয়ে বেজায় খুশি।পোষাক বিতরণ কর্মসূচি তে অন্যান্য দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক নীলয় মহন্ত, প্রলয় সরকার এবং শিক্ষিকা শর্মিষ্ঠা দেব সরকার ।