নিজস্ব সংবাদদাতাঃ- দেশে করোনা পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগজনক, প্রতিদিন বাড়ছে দৈনিক সংক্রমনের সংখ্যা তার সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুর হার। সেই কারণে দেশের প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দের সাথে ভার্চুয়াল বৈঠক করেছেন কিভাবে পরিস্থিতিকে কিছুটা নিয়ন্ত্রণ করা যায় । এরই মধ্যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করোনা ভ্যাকসিন সহ আরো দুটি বিষয়ের উপর দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন।

প্রসঙ্গত, করোনা আক্রান্ত রোগীদের ওষুধ, অক্সিজেন, সবচেয়ে জরুরি ভ্যাকসিন সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন।
দেশে করোনা সংক্রমণ ক্রমশই ঊর্ধ্বমুখী, লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃত্যুর সংখ্যা, গত ২৫ ঘন্টায় রাজ্য তে আক্রান্ত সংখ্যা প্রায় ৮৫০০। দেশে ভ্যাকসিনের অভাব ঘটেছে, এরই সঙ্গে ঘটেছে অক্সিজেনের অভাব, চিকিৎসা ব্যবস্থা ভেঙে পড়ার মুখে কিন্তু দেশের প্রধানমন্ত্রী এর সেই সব থেকে কোন খেয়াল নেই তিনি উদ্যোগী হয়েছেন কিভাবে বাংলা দখল করবেন, সম্প্রতি লোকদেখানো একটি ভার্চুয়াল মিটিং করেছেন বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দের সাথে , এই ভাবেই তৃণমূল কংগ্রেসের বিভিন্ন নেতারা প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করেছেন।

সবচেয়ে বেশি ঝাঁজালো আক্রমণ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তিনি রবিবার দিন খড়দহ একটি জনসভা থেকে জানান দেশের এই রকম উদ্বেগজনক পরিস্থিতির জন্য প্রধানমন্ত্রী দায়ী’, তার অবিলম্বে উচিত পদত্যাগ করা। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম ও সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক তীব্রভাবে আক্রমণ করেছেন নরেন্দ্র মোদিকে। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে রোমান সম্রাটদের সাথে তুলনা করেছেন। সীতারাম ইয়েচুরি বলেছেন যেভাবে রাজ্য করোনা সংক্রমণ বাড়ছে তার জন্য মিটিং-মিছিল জনসভা গুলি দায়ী। নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহের এইসব দিতে কোনো হেলদোল নেই। প্রচুর পরিমাণে বাইরের থেকে লোক নিয়েছে নির্বাচনী প্রচার চালানো হচ্ছে যার ফলে বাড়ছে রাজ্যে সংক্রমনের সংখ্যা।