সনাতন গরাই, দুর্গাপুর :- গত কয়েক মাস আগে থেকে দুর্গাপুরের ইস্পাত নগরীতে রাতের অন্ধকারে গাড়ি পোড়ানো নিয়ে শোরগোল পরে গিয়েছিল।কে বা কারা এই কাজের সাথে যুক্ত ছিল কেউ ই বুজতে পারছিল না।পুলিশ তদন্তে নামলেও প্রথমত এই ঘটনার সাথে কে বা কারা জড়িত কিছুই খুঁজে পান নি।পুলিশ গোপনে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছিল।যারা এই কাণ্ডের সাথে যুক্ত তারা ওই এলাকায় পাহারা দিত আরজি পার্টির সদস্য বলে জানা যায়।মানুষ বেইমানি করলেও সময় করে না।সোমবার ওই গাড়ি পোড়ানো কাণ্ডের সাথে যুক্ত দোষীদের গ্রেফতার করে তার পর ধৃত ব্যাক্তিদের জেরা করে।পুলিশের জেরার জেরে তারা সমস্ত কথায় স্বীকার করে দেয়।ধৃত দুই ব্যাক্তির নাম তারক কর্মকার ও গৌরাঙ্গ পাল ওই এলাকার ই বাসিন্দা ছিল দুইজন।তাদের মঙ্গলবার দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে তোলা হয় শাস্তির দাবিতে।

পুলিশি সূত্র ধরে জানা গেছে,ধৃত দুই ব্যক্তি পাহারা দেওয়ায় রাত্রেবেলাই অনায়াসে ঘুরতে পারতো।আর এলাকার মানুষও তাদের সন্দেহ করত না।তাই ধৃত দুই ব্যক্তি মজা নেবার জন্য সময় বুঝে বাড়ির গাড়ির গ্যারেজের ভেতর ধরিয়ে দিত আগুন,তার পর শুরু হত শোরগোল।কে বা কারা করলো জানতে পারতো না কেউই।প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয় গোপন সূত্র ধরে তারক কর্মকার ও গৌরাঙ্গ পালকে গ্রেফতার করা হয় এবং মঙ্গলবার মহকুমা আদালতে তোলা হয়।এই ঘটনার সত্য জানার পর এলাকার মানুষের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।