সনাতন গরাই, দুর্গাপুর :- দুর্গাপুরের পূজা মণ্ডপ দেখতে আসার আনন্দই আলাদা। মার্কনি দক্ষিণপল্লী পূর্নাথীদের মনে এক অন্য জায়গা সৃষ্টি করে দেয়।প্রত্যেক বছর নতুন নতুন মণ্ডপ তৈরি করে মানুষকে আনন্দ দান দেয়।কখনো দেশ,আবার কখনো বিদেশের দৃশ্য তুলে দেয় এই মার্কুনি দক্ষিণ পল্লী। মণ্ডপের প্যান্ডেলের সাথে লাইটের কারুকায্য থাকে অসাধারণ যা অবাস্তব চিত্রকেও বাস্তবে পরিণত করে।যা দেখে পূর্নাথীরা চোখ ফেরাতে পারে না।

এবারের থিম নাইজেরিয়ার মৎস্য উৎসব।নাইজেরিয়ার কেব্বি রাজ্যের আরগাঙ্গু অঞ্চলে উর্বরতা খুবই ভালো তাই সেখানে নদীর জলেই হয় চাষবাস।চাষবাসের পাশাপাশি ওই নদীর জলেই হয় মৎস্য চাষ।দুর্গাপুরের মার্কনি দক্ষিণপল্লী সর্বজনীনএর মণ্ডপে দেখা যাবে নাইজেরিয়ার মৎস্য উৎসব।আর মাত্র কয়েকটা দিন পরই পূজা শুরু তাই সেই মুহূর্তের কাজ সারতে ব্যাস্ত শিল্পীরা।মণ্ডপে প্রায় ৫০০টার অধিক মডেল থাকছে।দুর্গা প্রতিমার পাশে থাকছে আরগাঙ্গু অঞ্চলের বিভিন্ন জনজাতির ছাপ,জঙ্গলের গাছ পাতা,ডাল,বাঁশ,ও বিভিন্ন মাছের দৃশ্য পূর্নাথীদের মন কেড়ে নেবে।

মার্কনি দক্ষিণপল্লী সর্বজনীন দুর্গাপূজার একজন সদস্য জানান এইবারের পূজা ৫৯বছরে পদার্পন করলো।প্রত্যেক বছরের মত এই বছরও নতুন এই কাহিনী নাইজেরিয়ার মৎস্য উৎসব দেখে নিতে পারবে।অন্যান্য বছরের মতো এই বছরও পুজোর বাজেট প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা। মন্ডপ তৈরির কাজ প্রায় শেষের মুখে। মন্ডপ এর বাইরে মেলা বসতে শুরু করেছে। এই মণ্ডপে প্রশাসনিক নিরাপত্তা জোরদার রাখা হয়েছে বলে জানায়। চতুর্থীর দিন অনুষ্ঠানিকভাবে পুজোর উদ্বোধন করা হবে।