তিন লোকসভা কেন্দ্র এবং ভাটপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে অধিকাংশ বুথ স্পর্শকাতর বিবেচনা করাতে, কমিশনের নির্দেশে প্রতি বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে- জেলাশাসক অন্তরা আচার্য

0
Advertisement

বারাসত, সংবাদদাতা :- ভোট গ্রহনের ২৪ ঘন্টা আগেও বারাসত, বসিরহাট,দমদম কেন্দ্রের জন‍্য কত কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন থাকছে তা নিয়ে সুনিদিষ্ট কোন‌ও তথ্য‌ই দিতে পারলেন না উত্তর ২৪ পরগনার জেলা নির্বাচনী আধিকারিক তথা জেলাশাসক অন্তরা আচার্য।এক‌ইভাবে ভোট প্রক্রিয়া চলাকালীন পুরনো মামলায় কতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে কিংবা কত টাকা বাজেয়াপ্ত হয়েছে সে নিয়ে‌ও কোন‌ও তথ্য নেই জেলা নির্বাচনী আধিকারিকের কাছে।আজ বিকালে ভোট সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বারাসতে জেলাশাসকের দপ্তরে এক সাংবাদিক বৈঠক ডাকেন জেলার নির্বাচনী আধিকারিক অন্তরা আচার্য। সেখানেই এই সমস্ত বিষয় নিয়ে তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি কোন‌ও পরিসংখ্যান‌ই তুলে ধরতে পারেননি সাংবাদিকদের সামনে। শুধু ভোট গ্রহণ কেন্দ্রের ভিতরে কি কি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে তা তুলে ধরতেই বেশি ব‍্যস্ত ছিলেন জেলার নির্বাচনী আধিকারিক।এর আগেও বনগাঁ ও ব‍্যারাকপুর লোকসভার ভোট গ্রহণে কেন্দ্রীয় বাহিনীর পরিসংখ্যান দে‌ওয়া কিংবা সীমান্ত সিল থাকা নিয়ে কোনও তথ্য‌ই দিতে পারেননি জেলার নির্বাচনী আধিকারিক অন্তরা আচার্য।এবার‌ও বারাসত, বসিরহাট ও দমদম লোকসভার ভোট গ্রহণে কেন্দ্রীয় বাহিনী থেকে শুরু করে টাকা বাজেয়াপ্ত কিংবা গ্রেপ্তারের পরিসংখ্যান কোন‌ও কিছুরই তথ্য দিতে পারলেন না তিনি।এই সমস্ত বিষয় নিয়ে জেলা নির্বাচন আধিকারিকের সঙ্গে বিরোধীরা বারবার দেখা করে সরব হয়েছেন। কিন্তু, তারপরেও কোন‌ও পরিসংখ্যান কিংবা তথ‍্য সাংবাদিক সম্মেলনে দিতে না পারায় প্রশ্ন উঠেছে তাঁর ভূমিকা নিয়ে। এদিকে,ভোট গ্রহণের ক্ষেত্রে বারাসত লোকসভা কেন্দ্রের অধীনে বিধাননগরে বসবাসকারী প্রবীন নাগরিকদের পাশে দাঁড়াল নির্বাচন কমিশন।কমিশনের হেল্প লাইনে ফোন করলেই ভোট গ্রহন কেন্দ্রে আসার জন্য গাড়ির ব্যাবস্থা করবে কমিশন।আজ এক সাংবাদিক সম্মেলন করে একথা জানান জেলা শাসক অন্তরা আচার্য। বিধাননগরে বসবাসকারী অনেক প্রবীন নাগরিকদেরই ছেলে মেয়ে বিদেশে থাকেন।আবাসন বা নিজেদের বাড়িতে তাদের একাই থাকতে হয়।বয়স জনিত কারনে ভোট গ্রহন কেন্দ্রে এসে ভোট দেওয়ার ক্ষেত্রে তারা সমস্যার সন্মুখীন হন।এবার সেই সমস্যা দূর করতে ব্যাতিক্রমী পদক্ষেপ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।জেলা শাসক অন্তরা আচার্যকে বিধাননগরে বসবাসকারী প্রবীন নাগরিকরা আবেদন জানিয়েছিলেন এই বিষয়ে।তাদের আবেদনে সাড়া দিয়েই কমিশন বিধাননগরের ক্ষেত্রে একটা পাইলট প্রজেক্ট চালু করেছে।তিনি বলেন, ০৩৩২৫৮৪৬২৬৭ এবং ০৩৩২৫৮৪৬২৬৮ এই দুটি হেল্প লাইনের নম্বর অপারেট করা হবে বিধাননগর থেকে।প্রবীন নাগরিকরা এই হেল্প লাইনে ফোন করলেই গাড়ি পাঠিয়ে তাদের ভোট গ্রহণ কেন্দ্রে নিয়ে আসা হবে।এই পাইলট প্রজেক্টটি ভালো সাড়া পেলে অন্য জায়গাতেও পরবর্তীতে চালু করার সম্ভবনা রয়েছে। রবিবার সপ্তম দফায় ভোট হচ্ছে জেলার বারাসত,বসিরহাট এবং দমদম কেন্দ্রে। জেলা শাসক অন্তরা আচার্য বলেন, তিন লোকসভা কেন্দ্র এবং ভাটপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে অধিকাংশ বুথ স্পর্শকাতর বিবেচনা করেই কমিশনের নির্দেশে প্রতি বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে।শান্তিপূর্ণ ভোটের জন্য প্রশাসন সব ধরনের ব্যাবস্থা করেছে।
বারাসত কেন্দ্রে মোট ভোটারের সংখ্যা ১৭ লক্ষ ১০ হাজার ৬৮৩ জন।এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮ লক্ষ ৬৭ হাজার ৭৪৭। মহিলা ভোটার ৮ লক্ষ ৪২ হাজার ৮৯০ জন। তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার ৪৬ জন।বারাসত কেন্দ্রে নতুন ভোটার ৩৫ হাজার ৭৮০। জেলাশাসক আর‌ও বলেন, অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ ভোটের জন্য প্রশাসন কমিশনের নির্দেশে সব ধরনের ব্যাবস্থা নিয়েছে। তাঁর কথায়, বারাসত কেন্দ্রে মোট ভোট গ্রহন কেন্দ্রের সংখ্যা ১৯১৫। এর মধ্যে ৫৫০ টি পোলিং স্টেশনে ওয়েব কাস্টিং করা হবে।সি সি ক্যামেরার নজরদারি থাকছে ৪০৯ টি বুথে।আর ৬৩ টি বুথে থাকবে মাইক্রো অবজার্ভার। কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি রাজ্য পুলিশের কঠোর নজরদারিতে ভোট গ্রহন চলবে।জেলা শাসকের অফিসে কন্ট্রোল রুম থাকছে।
বসিরহাট কেন্দ্রে মোট ভোটার রয়েছে ১৬ লক্ষ ৭৫ হাজার ৫০০ জন।মোট বুথ থাকছে ১৮৬১ টি।এর মধ্যে ৩৫০ টি বুথে থাকছে ওয়েব কাস্টিংয়ের ব্যাবস্থা।সি সি ক্যামেরার নজরদারি রাখা হচ্ছে ৫৩০ টি বুথে।ভিডিওগ্রাফি করা হবে ২৫ টি বুথে। অার মাইক্রো অবজার্ভার থাকছে ১৫০ টি বুথে।
বসিরহাটের প্রত্যন্ত এলাকা গুলিতে যেহেতু ইন্টারনেটের সমস্যা রয়েছে,তাই এই কেন্দ্রে এবার হ্যাম রেডিওর সহায়তা নিচ্ছে কমিশন।জেলা শাসক জানিয়েছেন সন্দেশখালির ৮ টি এবং হিঙ্গলগঞ্জের ১৫ টি বুথে হ্যাম রেডিওর সহায়তা নেওয়া হবে।
দমদম কেন্দ্রের মোট ভোটার ১৫ লক্ষ ৫৬ হাজার ৭২৫ জন।ভোট গ্রহন কেন্দ্রের সংখ্যা ১৭৬১ টি। এর মধ্যে ৩০০ বুথে থাকছে ওয়েব কাস্টিংয়ের ব্যবস্থা। সি সি ক্যামেরার নজরদারি থাকছে ৫৮০ টি বুথে। ১১০ টি বুথে থাকছে মাইক্রো অবজার্ভার।
ভাটপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের মোট ভোটারের সংখ্যা ১ লক্ষ ৪৯ হাজার ১৬৪ জন
এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮১ হাজার ৭৭১। অার মহিলা ভোটার ৬৭ হাজার ৩৯২ জন। এখানে ভোট গ্রহন কেন্দ্রের সংখ্যা ১৬৩ টি। জেলাশাসক বলেন, ৫০ টি বুথে থাকছে ওয়েব কাস্টিংয়ের ব্যাবস্থা। সি সি ক্যামেরার নজরদারি থাকছে ৫০ টি বুথে। ৬১ টি বুথে থাকছে মাইক্রো অবজার্ভার।

নির্বাচনের কারনে বারাসতের বেশ কয়েকটি জায়গায় নাকা চেকিং চালু রেখেছে পুলিশ।জেলা শাসক অন্তরা আচার্য বলেন নির্বাচনের সময় নাকা চেকিং তিন কেন্দ্রে করা হচ্ছে।যেখানে অসঙ্গতি ধরা পড়ছে, পুলিশ তৎক্ষণাৎ ব্যাবস্থা নিচ্ছে।

★ দমদমের জন্য ৫৫ কোম্পানি, বারাসাতের জন্য ৬৮ কোম্পানি, বসিরহাটের জন্য ৭৮ কোম্পানি ও ভাটপাড়া বিধানসভা উপ নির্বাচনের জন্য ৬.১ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী নিযুক্ত করা হয়েছে বলে জেলাশাসক জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 + twelve =