বাইজিদ মন্ডল, ডায়মন্ড হারবারঃ- দেখতে দেখতে পার হয়ে যাওয়া ১১টা বছর। ২০১১ সালের মে মাসে ৩৪ বছরের বাম অপশাসনের অবসান ঘটিয়ে বাংলার ক্ষমতায় আসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন সরকার৷ ৫ মে সেই সরকারের শপথ নেওয়ার ১১ বছর পূর্ণ হয়েছিল। আর সেদিন থেকেই রাজ্যের জেলায় জেলায় শুরু হয় সেই বর্ষপূর্তির অনুষ্ঠান, যার শুভ সূচনা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই।

এদিন রাজ্য সরকারের উন্নয়ন মূলক কাজের ১১ বছরে পদার্পণকে সামনে রেখে দক্ষিন ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মগরাহাট ১নং সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক করনে উন্নয়নের পথে বাংলা ১১ বছরে পদার্পনে সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে জনসংযোগ জন অভিযোগ নিষ্পত্তি করন শিবির হয়। এই অনুষ্ঠানটি সম্পূর্ন সুষ্ঠ ভাবে পরিচালনা করেন জেলা পরিষদ সদস্য মুজিবর রহমান মোল্লা।

উপস্থিত ছিলেন দঃ ২৪ পরগনার এ,ডি এম,এল আর নিতেশ ঢালী, মগরাহাট পশ্চিমের বিধায়ক গিয়াস উদ্দিন মোল্লা, ডায়মন্ড হারবার ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট রাতুল ঘোষ, মগরাহাট ব্লক ১ সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক তথা বিডিও ফতেমা কাওসার, মগরাহাট ব্লক১ এর সভাপতি মীনুফা বেগম, সহ সভাপতি মানবেন্দ্র মন্ডল, জেলা পরিসদ সদস্য মুজিবর রহমান মোল্লা সহ আরও অন্যান্য সকল বিশিষ্ঠ জনেরা।

বিডিও ফতেমা কাওসার বলেন, এই ১১ বছরে রাজ্য সরকার রাজ্যবাসীর উন্নয়নে অজস্র আর্থসামাজিক প্রকল্পের সূচনা করেছে। সেই সব প্রকল্পের কথা আমরা সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরছি এবং সাধারণ মানুষের সকল ধরনের সমস্যার কথা শুনে এখানে তা সমাধান করা হচ্ছে।

বিধায়ক গিয়াস উদ্দিন মোল্লা তিনি জানান, ‘উন্নয়নের পথে ১১ বছর’ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রতিটি প্রতিটি ব্লক স্তরে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন সাফল্যের কথা। ব্যানার এর মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে কৃষকবন্ধু, বাংলা শস্যবিমা, লক্ষ্মীর ভাণ্ডার সহ বিভিন্ন প্রকল্পের সাফল্যের কথা। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী অতিথিদের সকলকে উত্তরীয় ও পুষ্পক স্তবক দিয়ে সম্মাননা প্রদান করা হয়৷ আগত সাধারণ মানুষ যাহারা সকল ধরনের সমস্যা সমাধানের জন্য এই জনসংযোগ নিষ্পত্তি করণে এসে সঠিক ভাবে সুবিধা পেয়ে খুশি সাধারণ মানুষ।