অলোক আচার্য, নিউবারাকপুর :- চতুর্থ দফার নির্বাচন শেষ হতে না হতেই শাসক দলের পতাকা ফেস্টুন ব্যানার প্রার্থীর কাট আউট ছিড়ে ফেলা শুরু করল দুষ্কৃতীরা। জেলা জুড়ে চলছে শাসক দলের পতাকা ফেস্টুন ব্যানার ছিড়ে আগুণ লাগিয়ে দেওয়ার ন্যক্কারজনক ঘটনা। উত্তর ২৪ পরগণা জেলার নিউবারাকপুর পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের স্হানীয় নব বোধন সেবা ও সাংস্কৃতিক সংঘের সন্নিকটে সোমবার রাত ৯-১৫মিনিটে দুষ্কৃতীরা দমদম লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অধ্যাপক সৌগত রায়ের ফ্লেক্সে মুখে ব্লেড মারল। এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। তৃনমৃলের অভিযোগ বিজেপি আশ্রীত দুষ্কৃতীরা এই ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়ে এলাকায় অশান্তি পরিবেশ সৃষ্টি করছে। ভোট যত এগিয়ে আসছে বিরোধীরা বেশি করে এলাকায় অশান্তি ও হিংসা ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ শাসক দলের। এই ন্যক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিকালে স্হানীয় ৫নং ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকে এক ধীক্কার প্রতিবাদী মিছিল বের হয় আজ। স্হানীয় তৃণমৃলের নেতৃত্বের পক্ষ থেকে নিউ বারাকপুর থানায় ঘটনাটি জানিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এর আগে উত্তর দমদম পুরসভার ১৯নং ওয়ার্ডের খলিসাকোঠা তৃণমৃলের পতাকা ফেস্টুন ব্যানার ছিড়ে আগুণ ধরিয়েছে বিজেপি আশ্রীত দুষ্কৃতীরা।
এবিষয়ে স্হানীয় শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সুখেন মজুমদার বলেন,ঘটনাটি অত্যন্ত নিন্দনীয় এবং ন্যক্কারজনক। এলাকায় হিংসার রাজনীতি শুরু করেছে। শান্ত নববারাকপুরকে অশান্তি করে ভোটে বিশৃঙ্খলা পরিবেশ সৃষ্টি করতে চাইছে বিজেপিরা। স্হানীয় পুলিশ প্রশাসনকে বিষয়টি জানিয়েছি। দমদম লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অধ্যাপক সৌগত রায় নিউ বারাকপুর শহর থেকে প্রায় দশ হাজার ভোটের মার্জিনে পুনরায় নির্বাচিত হবেন। বাংলায় তৃণমূল ৪২এ৪২ আসন পাবে। বিজেপি প্রার্থী হেরে যাবার ভয়ে স্হানীয় বিজেপিরা তৃণমৃল কংগ্রেস প্রার্থীর ছবিতে ধারালো অস্ত্রদিয়ে মুখ কাটছেন। আমরা চাই অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন। সাধারন মানুষ ব্যলেট বাক্সে জবাব দেবেন।