তৃণমূলের উত্তর ২৪ পরগণা জেলার সভাপতি ও তার অনুগামীরা ঠাকুরনগর এলাকা থেকে প্রচুর পরিমাণে তোলা তুলতেন বলে অভিযোগ শান্তনু ঠাকুরে, পাল্টা তৃণমূল নেতা অভিজিৎ বিশ্বাসের অভিযোগ তৃণমূল যদি তোলা তুলে থাকে তাহলে মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর যখন মন্ত্রী ছিলেন তখন শান্তনু ঠাকুর ও তার দাদা তুলেছিলেন

0
Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা, বনগাঁ :- তৃণমূলের তোলা তোলা বন্ধ করেছে বিজেপির ছেলেরা , তাই তৃণমূল নেতাদের কথায় তাদের মিথ্যে কেস দেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশ থেকে ফিরে শনিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে এমন ভাষায় আক্রমণ করলেন বনগাঁর সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। ঠাকুর বাড়িতে বোমা মারার পিছনে তৃণমূলের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ করেন। যার উত্তর দিতে হবে প্রশাসনকে। তিনি আরও বলেন, মমতা ব্যানার্জির খাস লোক তথা উত্তর ২৪ পরগনা জেলার সভাপতি ও তার অনুগামীরা ঠাকুরনগর এলাকা থেকে প্রচুর পরিমাণে তোলা তুলতেন। শান্তনু ঠাকুর এমপি হওয়ার পরে বন্ধ করেছে তার অনুগামীরা । সেই জন্যই শান্তনু ঠাকুরের অনুগামীদের মিথ্যা কেসে ফাঁসানো হচ্ছে । আমি বাংলাদেশে যাওয়ার পরে আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করে কাটমানির পোস্টার মারা হয়েছে। আমার নিজের টাকায় আমার গাড়ি কেনা বলেও দাবি করেন তিনি । পুলিশের বিরুদ্ধে তোপ দেগে তিনি বলেন তৃণমূল নেতাদের কথা শুনে পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করছে।
এই বিষয়ে তৃণমূল নেতা অভিজিৎ বিশ্বাস বলেন তৃণমূল বোমাবাজি রাজনীতিতে বিশ্বাস করেনা l বোমাবাজির ঘটনায় আমাদের কেউ জড়িত নয়। তোলা তোলার বিষয়ে তিনি বলেন তৃণমূল যদি তোলা তুলে থাকে তাহলে মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর যখন মন্ত্রী ছিলেন তখন শান্তনু ঠাকুর ও তার দাদা তুলেছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

nineteen + 3 =