বাইজিদ মন্ডল, ডায়মন্ড হারবারঃ- রাজ্য জুড়ে এই মুহূর্তে পালিত হচ্ছে অরণ্য সপ্তাহ, প্রতিটি জেলায় চলছে এই মুহূর্তে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি । আর এই কর্মসূচিকে বাস্তবায়নের জন্য বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে কোথাও বা চারাগাছ বিতরণ করছেন, কোথাও বা সরকারী খাস জমিতে গাছ লাগাতে ব্যস্ত। নিজ নিজ ক্লাব এলাকাধীন জমিতে গাছ লাগাচ্ছেন বন আধিকারিকগণ, ইয়াসে ক্ষতিগ্রস্ত ডায়মন্ড হারবার পৌরসভার সংলগ্ন এলাকায় কয়েক হাজার চারা গাছ লাগানোর লক্ষ্য মাত্রা নিয়ে যুদ্ধ কালীন তৎপরতায় কাজ শুরু করেছেন। যে ভাবে একের পর এক এলাকাধীন অধিক সংখ্যক জনবসতির কারনে, নির্বিচারে চলছে গাছ কাটার পালা, প্রয়োজন কিম্বা অপ্রয়োজনে বৃক্ষ নির্মূল করতে নেমে পড়েছেন এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী,
এমনি চলতে থাকলে অচিরেই শেষ হয়ে যাবে।

একদিকে চলছে অরণ্য সপ্তাহ অপরদিকে চলছে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস আর এই বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের প্রাক্কালে বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান গুলিতেই চলছে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের বিশেষ সতর্কতামূলক বার্তা, এই সতর্কবার্তা দিয়ে এলাকার জনপ্রতিনিধি পরিবেশ প্রেমীরা ও প্রশাসনিক আধিকারিকরা মাঠে নেমে পড়েছেন।
উপস্থিত ছিলেন ডা:হা: ১নং ব্লক সভাপতি ও পুরসভার পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ গৌতম অধিকারী, বিধায়ক পান্নালাল হালদার, মহকুমা শাসক সুকান্ত সাহা সহ ডা:হা: পুরসভার সকল নেতৃত্বরা।

অপরদিকে পুরসভার পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ গৌতম অধিকারী বলেন, অধিক বৃক্ষ লাগান, বৃক্ষ পরিবেশকে পরিশুদ্ধ অক্সিজেন জোগায়,পরিবেশ শুদ্ধ থাকে ও অধিক বৃষ্টিপাত ঘটায় এবং বৃক্ষ দূষিত কার্বন ডাই অক্সাইড শোষণ করে। তাই বাড়ির আসে পাশে সকল কে বৃক্ষরোপণ করতে বলেন তিনি।