সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- টর্নেডোয় ক্ষতি শতাধিক বাড়ি। এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগণার হিঙ্গলগঞ্জ সাহাপুড় মোড় সংলগ্ন এলাকায়। মঙ্গলবার রাতে ৮টা নাগাদ হঠাৎ এক মিনিটের টর্নেডো ঝড়ের ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয় শতাধিক বাড়ি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় একশোর বেশি বাড়ি ভেঙে গিয়েছে। বেশিরভাগ তারমধ্যে মাটির বাড়ি। প্রচুর গাছের ডাল কারেন্টের পোস্ট ভেঙে পড়ে রাস্তায় এর ফলে যান চলাচল ব্যাহত হয়েছে। মোবাইল ফোনের টাওয়ার যন্ত্রাংশ ও বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙ্গে পড়ায় এলাকায় বৈদ্যুতিক পরিষেবা ও মোবাইল পরিষেবা ব্যাহত হচ্ছে।

এই ঘটনার খবর পেয়ে গতকাল রাতেই ঘটনাস্থলে জায় হিঙ্গলগঞ্জ ব্লকের বিডিও এবং ব্লাক জনপ্রতিনিধি ও পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ খতিয়ে দেখছেন এলাকায়। সকাল থেকে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় শুরু হয়েছে গাছের ডাল কাটার কাজ।এই কাজে হাত লাগিয়েছে স্থানীয় বাসিন্দা থেকে ব্লক প্রশাসনের কর্মীরা। হিঙ্গলগঞ্জ ব্লকে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে বিদ্যুৎ না থাকায় দূরত্ব ভেঙে যাওয়া বৈদ্যুতিক খুঁটি বসানোর কাজ শুরু করেছে বিদ্যুৎ দপ্তরের কর্মীরা।

যদিও গতকাল রাতে বেশ কিছু জায়গায় গাছের ডালপালা সরানো হয়েছে বলে জানা যায়। কিন্তু গতকাল রাতে ভারী বৃষ্টির জন্য কাজ পুরোপুরি ভাবে করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি ।এছাড়াও প্রবল বৃষ্টিতে সমস্যায় মধ্যে পড়তে হচ্ছে ওই সমস্ত ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির লোকেদের। এই এলাকার প্রায় ৬০ থেকে ৭০টি বাড়ির ছাউনি উড়ে গিয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

এই বিষয়ে স্থানীয় বাসিন্দার জামিরুল গাজী জানান, রাতে হঠাৎ ব্যাপক দমকা হাওয়ায় বাড়ির খড়ের চালের ছাউনি উড়ে যায়। গ্রাম্য এলাকায় সারাদিন চাষের কাজে জমিতে থাকায় বাড়ি ফিরে সকলেই বিশ্রাম নিচ্ছিলেন গ্রামের মানুষরা। হঠাৎ এই ধরনের ঘটনা ঘটায় আতঙ্কিত হয়ে পড়ে গ্রামের বাসিন্দারা। গাছের ডালপালা ভেঙে পড়তে থাকে রাস্তায়। কয়েকটি নারকেল গাছ ভেঙে পড়েছে বাড়ির উপর। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে গ্রামে। বেশ কিছুদিন আগেই যশের তাণ্ডবে বহু ক্ষতি হয়েছিল গ্রামবাসীর। ক্ষত সেরে উঠতে না উঠতেই আবার বড় ক্ষতির সম্মুখীন হতে হলো গ্রামবাসীদের। তাই প্রশাসনের তরফ থেকে যদি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়ায় তাহলে ভীষণ উপকৃত হবে গ্রামের খেটে খাওয়া গরিব মানুষ। এই বিষয়ে হিঙ্গলগঞ্জ ভিডিও সাথে ফোনে যোগাযোগ করা যায়নি।

তবে হিঙ্গলগঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির কর্মদক্ষ পরিমল বিশ্বাস বলেন, আচমকা হিঙ্গলগঞ্জের সাহাপুর মোড় থেকে হিঙ্গলগঞ্জের থানা পর্যন্ত এই এক কিলোমিটার গ্রামের ভেতর দিয়ে টর্নেডো ঝড় এক মিনিট তান্ডব চালিয়েছে। এর ফলে গ্রামবাসীদের ঘরবাড়ির ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা যায়। তবে ক্ষতির পরিমাণ খতিয়ে দেখে ব্লক প্রশাসন ব্যবস্থা নেবেন। উপস্থিত বিদ্যুৎ পরিষেবা পানীয় জলের সরবহ ঠিক রাখতে ওই সমস্ত এলাকায় জরুরী ভিত্তিক কাজ করছে ব্লক প্রশাসন।