অলোক আচার্য, বারাসতঃ- “বিশ্ব নারী দিবস” উদযাপনে – উত্তর ২৪ পরগনা জেলা আইনি পরিষেবা কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে বারাসত জেলা আদালত চত্বরে হল আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন। বারাসত হৃদয়পুর নব সোপান ও সোমা মাইম থিয়েটারের কলা কুশলিরা নারী সমাজের বিভিন্ন মানসিক নির্যাতন অত্যাচার মুকাভিনয়ের মধ্যে ফুটিয়ে তোলে এদিন। উপস্থিত ছিলেন জেলা জজ আদালতের বিচারক গন সহ বিশিষ্ট জনেরা ।

“যারা শুধু দিলে, পেলে না তো কিছুই “। উক্তিটি কথা সাহিত্যিক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের। নারী জাতির দুঃখ যন্ত্রণা ও বঞ্চনায় শরৎচন্দ্রের অন্তর্দৃষ্টি ছিল অপরিসীম। আজকের সমাজের এই কলঙ্কিত দিকটির সকল কথা হয়তো তিনি জেনে যেতে পারেননি। আমরা ভাবতে পারি, ওনার লেখনীর মূল্যায়ন ও ভাবনার উৎকর্ষে আজকের ” বিশ্ব নারী দিবস”। এই দিনটি হয়তো তিনি দেখতে চেয়ে ছিলেন,-“শুধু একদিন নয়, সকল দিনই হোক নারী শক্তির উন্মোচন”।

মঙ্গলবার উত্তর ২৪পরগনা জেলা আইনি পরিষেবা কর্তৃপক্ষের চেয়ারপারসন রায় চট্টোপাধ্যায় ও সচিব প্রীতমনা নন্দ তারই উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্বরূপ যে পদক্ষেপ গ্রহণ করলেন তাতে প্রদর্শিত হল সমগ্র নারী জাতির সম্মান। তাদের আত্মিক উন্নয়ন ও প্রাতিষ্ঠানিক বিকাশের আরো একধাপ এগিয়ে এল। আমরা আশা করি নারীজাতির বর্ণময় জীবন দিকে দিকে বর্ণিত হয়ে তারি ছটায় সমগ্র মানব জাতির উন্নয়নের দ্বার উন্মুক্ত হবে।