বাইজিদ মন্ডল, ডায়মন্ড হারবারঃ- সামনে লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বজবজ বিধান সভার অন্তর্গত ঘোষ প্যালেসে ফলতা বিধানসভা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জাহাঙ্গীর খান এর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয় তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সম্মেলন। যেখানে কর্মী সম্মেলনে মুখ্যরূপে উপস্থিত ছিলেন ফলতা বিধানসভা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি তথা বজবজের পর্যবেক্ষক জাহাঙ্গীর খান, বজবজ বিধানসভার বিধায়ক অশোক দেব সহ আরও অন্যান্য তৃণমূলের নেতা, কর্মী-সমর্থকরা।

এই কর্মী সম্মেলনে পুরুষদের পাশাপাশি মহিলা কর্মীদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। এদিন সভাপতি জাহাঙ্গীর খান বলেন, সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ও সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে জনকল্যাণ মূলক কর্মসূচি, এক ডাকে অভিষেক (৭৮৮৭৭৭৮৮৭৭) এর কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সামনে লোকসভা নির্বাচনে দিদির হাত শক্ত করতে ও লোকসভায় কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে এক বুলন্দ আওয়াজ রাখতে সকল প্রার্থীকে জয়ী করতে হবে। তিনি আরও বলেন, সকল প্রার্থী কে বিজয়ী করার জন্য পুরুষদের পাশাপাশি সমগ্র মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের একজোট হয়ে কাজ করতে হবে। এখানে ভোটে দাঁড়িয়ে জেতাটাই বড় কথা নয় কর্মসংস্থান এবং বেকারত্ব দূর করাই বড় সমস্যা। যে সমস্ত সরকারি কল-কারখানা সমস্ত বিক্রি হয়ে যাচ্ছে যদি বিক্রি হয়ে যায়, তাহলে বেসরকারি হয়ে যাবে কর্মসংস্থান যারা আছে তারা ছাঁটাই পড়বে তাই সে দিকে লক্ষ্য দিতে হবে। এবং যাতে আমাদের প্রার্থীকে জয়যুক্ত করে পার্লামেন্টে পাঠিয়ে আমাদের যে সমস্ত কলকারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সেগুলোকে নতুন করে ফিরিয়ে আনাটায় আমাদের উদ্দেশ্য।

পেট্রোল ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি এবং গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি সম্পর্কে সমস্ত কর্মীদের অবগত করে বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন নীতির বিরুদ্ধে অবশ্যই সবাইকে একজোট হয়ে লড়তে হবে। সামনে নির্বাচনে কেন্দ্রীয় সরকারের পরিবর্তন হলে, এতদিন যে উন্নয়ন থমকে আছে, তা আবার গতি পাবে।