নিজস্ব সংবাদদাতা, বসিরহাট :- জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা আছে এমন বহু সমাজবিরোধী এখনো প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে।তাদের অনেককেই দেখা যাচ্ছে রাজ্যের শাসক দলের হয়ে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে।এরফলে তৈরী হচ্ছে ভয়ের পরিবেশ। আমরা মনে করি না বারাকপুর লোকসভার মতো বসিরহাট লোকসভার ১৮৬১টি বুথই স্পর্শকাতর। কিন্তু প্রতিদিন যেভাবে পরিস্থিতি পাল্টাচ্ছে তাতে প্রতিটি বুথই স্পর্শ কাতর হতে চলেছে এবং সে বিষয়ে আমাদের নির্বাচন কমিশন রাজ্য ও দিল্লির কাছে দৃষ্টি আকর্ষণের পথে যেতে হবে।মঙ্গলবার বসিরহাটে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এমনই অভিযোগ করেন বসিরহাট লোকসভা কেন্দ্রের বামফ্রন্ট প্রার্থী পল্লব সেনগুপ্ত। এদিন টাউনহল সংলগ্ন সি পি আই(এম) প্রমোদ দাশগুপ্ত ভবনে বামফ্রন্টের উদ্যোগে এক সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ সি পি আই(এম) নেতা নীহারেন্দু চ্যাটার্জি, নারায়ন মণ্ডল, মহম্মদ সেলিম গায়েন, নিরঞ্জন সাহা, প্রতাপ নাথ, সিপিআই নেতা শৈবাল ঘোষ, সুবীর মুখার্জি।
উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবের পাশাপাশি পল্লব সেনগুপ্ত বলেন, আমাদের স্লোগান নিজের ভোট নিজে দিন, যাকে খুশি তাকে দিন। জাতপাত, ধর্মের ভিত্তিতে নয়।ভোটটা হোক মানুষকে সাথে নিয়ে। কিন্তু আমরা লক্ষ্য করছি অদৃশ্য কোন শক্তি কাজ করছে।বিজেপির বক্তব্যে মেরুকরনের আভাস পাচ্ছি।আর এস এস এখানে যথেষ্ট সক্রিয়।যা বসিরহাটবাসীর জীবনে ভবিষ্যতে বিড়ম্বনা তৈরী করতে পারে। সমস্ত দলের প্রার্থীদের কাছে অনুরোধ ধর্মীয় অনুভূতি নিয়ে ভোট চাইবেন না।দেশ বিপদগামী হবে। জাতীয় কংগ্রেস প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করে তিনি বলেন বামফ্রন্টের কর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছেন। তিনি বলছেন সিপিএম আমার হয়ে প্রচার করছে।