অলোক আচার্য, নিউবারাকপুর :- মোহন দাস করমচাঁদ গান্ধী থেকে গান্ধীজী-এক ব্যক্তিত্ব থেকে আরেক ব্যক্তিত্ব -সে এক সময়,সে এক দীর্ঘ জীবন। এক অপূর্ব ও বিরল উত্তরোণ। একটি চিরদিনের ইতিহাস। সে জীবনে আমরা যতবার তাকাই ততবার বিস্মিত হই। তিনিই আবার মহাত্মা গান্ধী -জাতির জনক। জেলাজুড়ে গান্ধীর জন্মের সার্ধশতবার্ষিকী পালন হল। স্বাধীনতা আন্দোলনের প্রধান ব্যক্তিত্ব গান্ধীজীর জন্মদিবস সাড়ম্বরে পালিত হয় উত্তর ২৪ পরগণা জেলার নিউবারাকপুরে। নিউ বারাকপুর কলোনি বয়েজ হাই স্কুল এবং গার্লস হাই স্কুলে যথাযোগ্য মর্যাদা সহকারে দিনটি পালন করে। এদিন সকালে দুটি স্কুলেই বর্ণাঢ্য প্রভাতফেরী বের করে গান্ধীজীকে শ্রদ্ধার্ঘ জানিয়ে। নিউ বারাকপুরের বিভিন্ন পথ পরিক্রমা করে। কলোনি বয়েজ হাই স্কুলে মুক্তমঞ্চে গান্ধীজীর প্রতিচ্ছবিতে মাল্যদান করে শ্রদ্বার্ঘ জানান বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ড অনিরুদ্ধ বিশ্বাস,পরিচালন সমিতির সদস্য সমীর শীল সহ অন্যান্য শিক্ষক শিক্ষিকা শিক্ষাকর্মীগন বিদ্যালয়ের ছাএ ও এনসিসি র ক্যাডেটরা। উদ্বোধনী সঙ্গীত তুমি নির্মল কর মঙ্গল করো মলিন মর্ম মুছায়ে পরিবেশন করেন বিদ্যালয়ের ছাএ অনির্বান মিস্ত্রী। তবলায় অঙ্কন সাহা। গান্ধীজীর কর্মকান্ড ওআদর্শ নিয়ে সুচিন্তিত প্রাসঙ্গিক বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক পরিমল কান্তি মন্ডল,সুখেন্দু বিকাশ মাইতি ও সমীর শীল। অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ভাষন দেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ড অনিরুদ্ধ বিশ্বাস।অনুষ্ঠানটি পরিচালনা ও সংগীত পরিচালনায় ছিলেন শিক্ষক সুখেন্দু বিকাশ মাইতি ও অম্লান দাশগুপ্ত।

অন্যদিকে নিউ বারাকপুর কলোনি গার্লস হাই স্কুলে ও যথাযোগ্য মর্যাদা সহকারে গান্ধীর জন্মের সার্ধশতবার্ষিকী পালন করে। বিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করেন সন্দীপ মিত্র। বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে এক সুসজ্জিত বণার্ঢ্য প্রভাতফেরী বের করা হয় গান্ধীজীকে শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদন করে। শক্তি সংঘ হয়ে বিভিন্ন পথ পরিক্রমা করে। গান্ধীজীর প্রতিচ্ছবিতে মাল্যদান করে শ্রদ্বার্ঘ জানান বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধানা শিক্ষিকা মনীকনা মুখোপাধ্যায়। গান্ধীজীর প্রতিচ্ছবিতে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন করে শ্রদ্বার্ঘ জানান বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা ও শিক্ষকাগন পরিচালন সমিতির সদস্য রা।
লেনিনগড় শিক্ষা নিকেতন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ও গান্ধীজির জন্মদিন পালন করা হয়। জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করে শ্রদ্বার্ঘ জানান বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক স্বপন রায়। পুষ্পার্ঘ নিবেদন করেন বিদ্যালয়ের পরিচালন সমিতির সভাপতি তপন বিশ্বাস সহ শিক্ষক শিক্ষিকারা ছাএ ছাত্রীরা। গান্ধীজীর ভারত ছাড়ো আন্দোলন দেশভাগ নিয়ে বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

10 + six =