রাহুল রায়, পূর্ব বর্ধমান :- গাজন পশ্চিমবঙ্গের পালিত একটি লোক উৎসব। এই উৎসব শিব, মনসা, নীল ও ধর্মঠাকুরের পুজা কেন্দ্রিক। ধর্মের গাজন সাধারণত বৈশাখ,জ্যেষ্ঠ ও আষাঢ় মাসে পালিত হয়। কাটোয়া ২নংব্লকের জগদানন্দপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘোড়ানাশ গ্রামে রয়েছে ধর্মরাজ ঠাকুর।সেখানে চলছে গাজন।এই ধর্মরাজ জমিদারদের ঠাকুর। সেবাইত সুদর্শন চক্রবর্ত্তী বলেন, প্রায় ৩০০ বছরের প্রাচীন এই ধর্মরাজ ঠাকুর। তিনি আরও বলেন,ধর্মরাজ ঠাকুরের বাৎসরিক পুজো হল গাজন উৎসব।বুধবার বাবার মন্দির প্রাঙ্গণে বাবার পুজো হল ও সন্ন্যাসীদের উত্তরী হল। বৃহস্পতিবার বাবাকে দাঁইহাটের গঙ্গারঘাটে গঙ্গাস্নান করাতে নিয়ে যাওয়া হয়।রাত্রিতে দুইজন সন্ন্যাসীকে কোপ বাণ ফোঁড়ানো হয় এবং তারা নাচতে নাচতে গ্রাম প্রদক্ষিণ করেএবং গ্রামের বিভিন্ন মন্দিরে পুজা হয়।রাত্রি প্রায় ১২টার সময় বাবা ঘরে আসেন। শুক্রবার ধর্মরাজ ঠাকুর ঘোড়ানাশ, মুস্থূলী, ওআমডাঙ্গা গ্রামের বাড়িতে বাড়িতেপুজিতহয়।রাত্রিতে বাবার পুজো হয় এবং সন্ন্যাসীদের কপালবাণফোঁড়ানো হয়।ভোরেনীল পুজোও হয়। শনিবার চড়ক পুজো হয়।রবিবার উত্তরীয় খোলা হয়।এইভাবে ধর্মরাজ ঠাকুরের গাজন উৎসব চলে আসছে প্রাচীন কাল থেকে।এবার ৪৪ জন সন্ন্যাসী হয়েছে।গ্রামবাসীরা এই কদিন আনন্দোৎসবে মাতোয়ারা।