মোর্তজা আহমেদ, নদিয়া :- এক আত্মীয়ের বাড়িতে লক্ষ্মী পূজার প্রসাদ খেয়ে রাতে বাড়ি ফেরার সময় তৃণমূলের প্রাক্তন যুবার সক্রীয় সদস্যকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। দুষ্কৃতীদের ছোড়া গুলিতে গুলি বিদ্ধ হয় ওই দাপুটে তৃণমূল কর্মী। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়া জেলার হাঁসখালি থানার অন্তর্গত দক্ষিণপাড়া ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে জয়পুর গ্রামে। গুলি বিদ্ধ যুবক দীপঙ্কর সরকার এলাকার প্রাক্তন যুবার সক্রিয় সদস্য। দাপুটে এই তৃণমূল কর্মী অনেকদিন ধরেই বিজেপির আক্রোশের শিকার ছিলেন বলেই জানান, অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস দলীয় সভাপতি অনুপম রায় চৌধুরী, প্রধান অজয় বিশ্বাস সহ একাধিক নেতৃত্ব। গতকাল এলাকারই এক আত্মীয়ের বাড়ি লক্ষ্মী পূজার প্রসাদ খেয়ে ফেরার সময় আনুমানিক সাড়ে আটটা নাগাদ কয়েকজন দুষ্কৃতী দুটি গুলি করে, একটি তার বুকে লাগে অন্যটি ডান হাতে।

দুষ্কৃতীদের প্রত্যেকের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র থাকায় দু- একজন দেখলেও এগোতে সাহস পাননি কেউই। দীপঙ্কর বাবু চিনতে পারেন তিনজনকে তারা এলাকারই বিজেপি আশ্রিত সমাজবিরোধী। আহত হওয়ার পর এক তৃণমূল কর্মী তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালের জবানবন্দিতে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন তিনজন ব্যক্তির নাম। অথচ এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার না হওয়ায়, প্রশ্ন উঠছে হাঁসখালি থানার ওসি রজনীকান্ত বিশ্বাসের নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে। এলাকার নেতৃত্ব জানান, দলীয় এবং প্রশাসনিক ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি জানানো হয়েছে। আমরা আশাবাদী এ বিষয়ে অতিসত্বর ব্যবস্থা নেবে দল।