অলোক আচার্য, কলকাতাঃ- মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আবেদনে সাড়া দিয়ে করোনার মৃদু উপসর্গ থাকা রোগীদের জন্য সেফ হোম চালু করল গড়িয়াহাট হিন্দুস্থান ক্লাব। পুজোর অন্যতম উদ্যোক্তা তথা এলাকার বিধায়ক দেবাশিস কুমার ও রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য ‘ নিরাপদ আবাস’ নামে ওই সেফ হোমের সূচনা করেন সোমবার।

করোনার জেরে বিভিন্ন হাসপাতালের ওপর বাড়তি চাপ সামাল দিতে নাগরিক সহযোগিতা চেয়ে বিভিন্ন ক্লাব ও পুজো কমিটিদের এগিয়ে আসার আবেদন জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে হিন্দুস্থান ক্লাব ২৫ খাটের সেফ হোম চালু করেছে। এর মধ্যে ১০ টি খাট মহিলাদের জন্য রাখা হয়েছে। বাকি ১৫ টিতে পুরুষদের চিকিৎসা হবে। রয়েছে মেডিক্যাল সার্পোটের ব্যবস্থা।

হিন্দুস্থান ক্লাব সূত্রে খবর, বাসন্তী দেবী কলেজের পাশে তৈরি হওয়া ওই সেফ হোমে থাকছে অক্সিজেন পার্লার ও অ্যাম্বুলেন্স। কোনো করোনা আক্রান্তের অক্সিজেনের দরকার পড়লে উপযুক্ত কাগজপত্র দেখালে রোগীর বাড়িতে গিয়ে অক্সিজেন সাপোর্ট দেওয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, বিধায়ক দেবাশিস কুমার, পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় ও অভিনেতা আবীর চট্টোপাধ্যায়। রোটারী ক্লাব, বিজলী গ্রীল, আমরী হাসপাতাল সহ স্থানীয় উদ্যমী ছাএ ছাত্রী রা এই মানব সেবার পরিষেবা সহযোগিতা করে।