অলোক আচার্য, ব্যারাকপুরঃ- “করোনা ওষুধ নিজের দেশের মানুষ কে না দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বাইরের দেশ গুলো তে পাঠিয়ে দিচ্ছেন আর নিজের দেশের মানুষ ওষুধ আর অক্সিজেনের অভাবে মারা যাচ্ছে। বাংলা মহারাষ্ট্র কে করোনা র ওষুধ দিচ্ছে না সব ওষুধ গুজরাটে পাঠিয়ে দিচ্ছেন আর বাইরের দেশ গুলো কে পাঠিয়ে দিচ্ছেন।”

খড়দহ ও ব্যারাকপুর বিধানসভার তৃণমূলের প্রার্থী কাজল সিনহা ও রাজ চক্রবর্তীর সমর্থনে হয়ে রবিবার দুপুরে খড়দহ সূর্য সেন নগরের মাঠে প্রচারে এসে ফের একবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে এক হাত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন তিনি তৃণমূল কংগ্রেসকে তোলাবাজ বলে যে প্রচার করা হচ্ছে তা নিয়েও সরব হন। বাংলায় গণতন্ত্রের উৎসবকে শেষ করে দিয়েছে মোদী সরকার। বাংলার কোভিড ভ্যাকসিন নেই। টাকা দিয়ে টিকাকরণ কিনবে রাজ্য সরকার। অথচ ভ্যাকসিন নেই বাজারে। মোদী বলেন ভ্যাকসিন টিকাকরণ পাঠিয়েছি গুজরাটে। কোভিড পরিস্থিতির বাড়বাড়ন্তর জন্য মোদী সরকারকে দায়ী করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিজেপির সরকার কে চাঁচা ছোলা ভাষায় আক্রমণ করেন মমতা। বহিরাগতরা বাংলায় বেশি করে আসছে তার ফলে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জনসভায় উপস্থিত ছিলেন দমদম সাংসদ সৌগত রায়, ব্যারাকপুর পুরসভার প্রশাসক উত্তম দাস, প্রশান্ত চৌধুরী, খড়দহ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সুকুরালি পুরকাইত সহ খড়দহ ও ব্যারাকপুর পুরসভার তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্বরা।