রাজেন্দ্র নাথ দত্ত, মুর্শিদাবাদঃ- মুর্শিদাবাদ জেলার খড়গ্রাম ব্লকের বালিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের শিবপুর গ্রামের আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকায় বিশেষ জনসংযোগ শিবির অনুষ্ঠিত হ’ল। এই ক্যাম্পে জাতিগত শংসাপত্র, কন্যাশ্রী প্রকল্প এছাড়াও লক্ষ্মীর ভান্ডার এর মত প্রকল্প গুলির জন্য আবেদন করেন অনেকে। মূলত আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকার বাসিন্দারা নানা কারণে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে আসতে দ্বিধাবোধ করেন বলে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা গেছে। সে কথা মাথায় রেখেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানা যায়।

ঠিক সেই মতই কান্দি মহকুমার খড়গ্রাম ব্লকের বালিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের একটি আদিবাসী অধ্যুষিত গ্রাম রয়েছে যার নাম শিবপুর কলোনি। সেই গ্রামেই জনসংযোগ শিবির এর একটি বিশেষ ক্যাম্প করা হল বালিয়া গ্রাম পঞ্চায়েত ও খড়গ্রাম ব্লক প্রশাসন এর পক্ষ থেকে। এই বিশেষ জনসংযোগ শিবির ক্যাম্পে অসংখ্য আদিবাসী মানুষ তাদের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ শংসাপত্র এবং নানা সরকারি বিষয়ে উপকৃত হচ্ছেন বলে জানা যায়। এই ক্যাম্প থেকে বেশ কিছু শংসাপত্র ও সামাজিক সুরক্ষা যোজনার কার্ড দেওয়া হয় আদিবাসীদের মধ্যে।

এ বিষয়ে বালিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান গোকুল ঘোষ বলেন, আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে করা হচ্ছে বিশেষ জনসংযোগ শিবির প্রকল্প। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ শংসাপত্র লক্ষ্মীর ভান্ডার, জমি সংক্রান্ত বিষয়, সামাজিক সুরক্ষা যোজনা ইত্যাদি প্রকল্পের আবেদন নেওয়া হচ্ছে এই ক্যাম্প থেকে। স্বাভাবিকভাবেই এই বিশেষ জনসংযোগ শিবির ক্যাম্প এর ফলে উপকৃত হচ্ছেন আদিবাসী মানুষেরা।

এই ক্যাম্পে উপস্থিত ছিলেন খড়গ্রাম ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক বাপি ধর, খড়গ্রাম ব্লক যুগ্ম সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক, খড়গ্রাম পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ আবুল হাসনাত, বালিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান গোকুল ঘোষ, বালিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের সমস্ত সদস্য ও সদস্যারা, বালিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের সমস্ত সরকারি আধিকারিকরা, বিশিষ্ট সমাজসেবী জ্যোতিনময় মন্ডল।