অলোক আচার্য, মধ‍্যমগ্রামঃ- কোভিড সংক্রমণ প্রতিরোধে মাস্ক ও স‍্যানিটাইজার বাধ‍্যতামূলক। কোভিড-১৯ সরকারী বিধিনিষেধ মেনে চলার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনগুলিও এগিয়ে আসে স্বাস্থ‍্য সচেতনতায়। শ‍্যামা পুজো উপলক্ষ‍্যে মধ‍্যমগ্রামে প্রচুর মানুষের জমায়েত হয়, ভিড় হতে থাকে মন্ডপে মন্ডপে। সারারাত ধরে বজায় থাকে এই ভিড়।

দর্শনার্থীদের পাশে থেকে তাদের বিনামূল‍্যে হাত স‍্যানিটাইজ করালো মধ‍্যমগ্রাম শিক্ষা সংস্কৃতি পরিষদ এবং মধ‍্যমগ্রাম বাউল ও লোক‌উ‌ৎসব কমিটির সদস‍্যরা। স্টেশন সংলগ্ন উড়ালপুলের নীচে বিবেকানন্দ মঞ্চ থেকে দর্শনার্থীদের জন‍্য বিনামূল‍্যে মাস্ক বিতরণ ও স‍্যানিটাইজ করা হয় শ‍্যামাপুজো উপলক্ষ‍্যে।

পাশাপাশি পানীয় জলের ব‍্যবস্থাও রাখা হয়েছিল। কোভিড-১৯ সরকারী নিয়মকানুন মেনে চলার পরামর্শ দেন যৌথ সংগঠনের সদস‍্যরা। শুক্র ও শনিবার দুদিন সন্ধ‍্যা ৬-৮টা পর্যন্ত চলে এই সচেতনতা সামাজিক কর্মসূচি। যৌথ সংগঠনের পাশাপাশি বিভিন্ন গণসংগঠক সঙ্গীতশিল্পী বাচিকশিল্পী সংগঠক চিকিৎসক স্বাস্থ্যকর্মী শিক্ষিকা সমাজসেবীরা এগিয়ে আসেন কর্মসূচির সার্থক রূপায়নে। সদস‍্যরা মাইকিং এর মাধ‍্যমে প্রচার করেন পরিবেশের ভারসাম‍্য বজায় রাখুন। কোভিড-১৯ সরকারী বিধিনিষেধ মেনে চলুন, মাস্ক ও স‍্যানিটাইজ ব‍্যবহার করুন।

যৌথ সংগঠনের পক্ষে আইনজীবী কমলেশ চন্দ্র সাহা এবং সমাজকর্মী বীরেন্দ্র রঞ্জন মজুমদার জানান, কালীপুজো উপলক্ষ‍্যে মধ‍্যমগ্রাম শহরে লক্ষাধিক মানুষের সমাগম হয়। মন্ডপে ও প্রতিমা দর্শনে মানুষের ঢল নামে। কোভিড-১৯ স্বাস্থ‍্যবিধি পালনে দর্শনার্থীদের সচেতনতা বাড়াতে দুদিন ব‍্যাপী এই সামাজিক কোভিড সচেতনতার প্রচারের আয়োজন‌। মানুষকে সাধ‍্যমতো মাস্ক ও স‍্যানিটাইজ করানো হয়েছে।