বাইজিদ মন্ডল, ডায়মন্ড হারবারঃ- একশো দিনের বকেয়া অর্থ ও বাংলার প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের বঞ্চনার বিরুদ্ধে এবং দিনের পর দিন অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধির জেরে সারা রাজ্য জুড়ে তারই প্রতিবাদে সরব হয়, রাজ্যের মন্ত্রী থেকে শুরু করে সকল ব্লক স্থরের তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। তার পাশাপাশি এদিন ডায়মন্ড হারবার ২নং ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস ও যুব কংগ্রেসের উদ্যোগে বিকেলে নারায়ণ তোলা থেকে প্রতিবাদ মিছিল শুরু করে সরিষা আশ্রম মোড় পর্যন্ত পায়ে হেঁটে বিক্ষোভে আওয়াজ তুলল ডায়মন্ড হারবার সরিষা রাজপথে। পাশাপাশি নরেন্দ্র মোদির কুশপুতুল দাহ করা হয়।

এই প্রতিবাদ মিছিলে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মত। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক পান্নালাল হালদার, ব্লক২ সভাপতি অরুময় গায়েন, সরিষা অঞ্চলের অবজারভার তথা যুব নেতা শামীম আহমেদ মোল্লা, আইনজীবী তথা যুব নেতা মাহবুবার রহমান গায়েন, কবিরুল ইসলাম, নীতিশ মোদক, মইদুল মোল্লা সহ ব্লক ২ সকল প্রধান, উপপ্রধান ও আরও অন্যান্য নেতৃত্বরা।

মিছিলে ব্লক২ সভাপতি অরূময় গায়েন বলেন, যেভাবে দিনের পর দিন কেন্দ্র সরকার মানুষ মারার রাজনীতি করছে তার কোনো ভাষা নেই, এত মূল্যবৃদ্ধি হলে গরীব মানুষ খাবে কি। তাছাড়া যেভাবে বাংলাকে কেন্দ্রীয় সরকার সব দিক থেকে বঞ্চিত করে চলেছে এবং রাজ্য সরকারের পাঁচ মাসের একশো দিনের কাজের টাকাও আটকে দিয়েছে, তা সাধারণ মানুষ দেখছে, এর জবাব মানুষ দেবে ভোটের বাক্সে।

মাহবুবার রহমান গায়েন বলেন, আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সাংসদ অভিষেক এর নির্দেশে প্রতিবাদ মিছিল করা হল। কেন্দ্র সরকার যদি রাজ্যের একশো দিনের কাজের বকেয়া টাকা না দিলে আরও বৃহত্তর আন্দোলন করবো।

যুব নেতা শামীম আহমেদ বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার নোংরা রাজনীতি খেলতে গিয়ে আমাদের রাজ্যে একশো দিনের কাজের টাকা আটকে দিয়েছে, অথচ এটা আমাদের রাজ্যের প্রাপ্য। এই গরীব মানুষ গুলো দিন আনে দিন খায়, তারা কাজ করেছে অথচ টাকা পাচ্ছে না, এই ভাবে মানুষের পাওনা টাকা আটকে রাখা যাবে না। তারই প্রতিবাদে এই মিছিল। একশো দিনের কাজের টাকা না দেওয়ার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ স্লোগান ধ্বনিত হয় মিছিলে, সংশ্লিষ্ট বিষয়কে সামনে রেখে স্থানীয় বিধায়ক কে সঙ্গে নিয়ে এই পথসভা হয়।