নিজস্ব সংবাদদাতা, পুরুলিয়াঃ- গতকাল পুরুলিয়া জেলার কেন্দা থানার কোনাপাড়া জুনিয়র বেসিক স্কুল সংলগ্ন ময়দানে পূর্বাঞ্চল আদিবাসী কুড়মি সমাজ আদিবাসীদের নায্য অধিকারের দাবি নিয়ে বিশ্ব আদিবাসী দিবস উদযাপন করলেন।

প্রসঙ্গত, জাতিসংঘ ১৯৮২ সালে সর্বপ্রথম আদিবাসীদের স্বীকৃতি দেয়। ১৯৯৫ সালের ৯ই আগষ্টকে ” বিশ্ব আদিবাসী দিবস ” ঘোষণা করা হয়। সাধারণত কোন একটি নিদিষ্ট এলাকায় অনুপ্রবেশকারী বা দখলদার জনগোষ্ঠীর আগমনের পূর্বে যারা বসবাস করত এবং এখনো করে ; যাদের নিজস্ব আলাদা সংস্কৃতি, রীতিনীতি ও মূল‍্যবোধ রয়েছে ; যারা নিজেদের আলাদা সামষ্টিক সমাজ-সংস্কৃতির অংশ হিসেবে চিহ্নিত করে, তারই আদিবাসী। আদিবাসীদের উপজাতি হিসাবে সম্বোধন করা একেবারেই অনুচিত, কারন তারা কোন জাতির অংশ নয় যে তাদের উপজাতি বলা যাবে বরং তারা নিজেরাই একটি আলাদা জাতি। কুড়মীদের একটা নিজস্বতা রয়েছে, তাই আলাদা জাতি।

কোনাপাড়াতে বিশ্ব আদিবাসী দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পূর্বাঞ্চল আদিবাসী কুড়মি সমাজের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক প্রাক্তন বিধায়ক শতদল মাহাতো, রাজ‍্য সম্পাদক সুভেন্দু মাহাতো, কুড়মী উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান সুনীল মাহাতো, মানভূম কালচারাল একাডেমির সদস্য প্রধান শিক্ষক রাধানাথ মাহাতো ও সৃষ্টিধর মাহাতো, জেলা সম্পাদক ফটিক চন্দ্র মাহাতো, জেলা কমিটির ক্ষুদিরাম মাহাতো ও সৌমেন মাহাতো, সমাজের পুঞ্চা ব্লকের সভাপতি সাধুচরন মাহাতো, সম্পাদক ফনিভূষন মাহাতো , প্রধান শিক্ষক বিজয় কুমার মাহাতো , কোনাপাড়া জুঃ বেঃ বিদ‍্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রশান্ত কুমার মাহাতো, শিক্ষক উত্তম কুমার মাহাতো, শিক্ষক কালাচাঁদ মাহাতো, শিক্ষক সুবোধ রাজোয়াড়, শিক্ষক তিমির বরন মাহাতো, বিশিষ্ট সমাজ কর্মী বিরিঞ্চি মাহাতো, নীল কমল মাহাতো, গুনধর সহিস সহ কোনাপাড়া গ্রামের আপামর জনসাধারণ ও পূর্বাঞ্চল আদিবাসী কুড়মি সমাজের কর্মীরা।