কালিপুজোর প্রতিমা-বরণ করতে গিয়ে নিখোঁজ স্কুল পড়ুয়া, উদ্ধার সোনারপুর চাইল্ড হোমে

0
Advertisement

অলোক আচার্য, নিউ বারাকপুর :-কালিপুজোর প্রতিমা বির্সজনে আগে প্রতিমা-বরণের সময় মহিলাদের সিদুঁর খেলা চলাকালীন এক স্কুল পড়ুয়া বাড়ি না ফেরায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। মেয়েটির বাবা মা ও স্হানীয় প্রতিবেশিরা খোজাখুজির পর না পেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ প্রশাসনের দ্বারস্থ হয় পরিবার। নিখোঁজ মেয়েটির নাম চৈতালী দাস। নিউ বারাকপুর কলোনি গার্লস হাই স্কুলের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী। বয়স ১৩বছর। পরনে ছিল লাল কালো কুর্তা ল্যাগিস। গায়ে কালো রঙের ওরনা ছিল। বাড়ি নিউ বারাকপুর পুরসভার ৮নং ওয়ার্ডের ১১৬ জগদীশ বসু রোডে। বাবা মহাদেব দাস। পেশায় ব্যবসায়ী। মহাদেব দাস জানান, গত বুধবার বিকেলে বাড়ি থেকে মেয়ে যায় স্হানীয় একটি ক্লাবের কালীপুজোর প্রতিমা বির্সজনে মহিলাদের সিদুঁর খেলায়। যাওয়ার সময় মেয়ের বান্ধবীদের সাথে কথা কাটাকটি হয়। মেয়ে আমার পাশের প্রতিবেশির বাড়িতে যায়। মেয়ের সাথে কালীপুজোর মন্ডপে আমার দেখা হলে মেয়েকি বলি বাড়ি চলে যেতে। তারপর সন্ধ্যার সময় আমরা সপরিবারে বাড়ি এসে দেখি বড় মেয়ে আসেনি। চারিদিকে খুঁজতে বেরোই। স্হানীয় প্রতিবেশিদের নিয়ে দীর্ঘক্ষণ খোজখবর নেওয়া হয়। স্হানীয় পুলিশ প্রশাসনের দ্বারস্থ হই মেয়েকে উদ্ধারের। উল্লেখ্য গত বছরও মেয়েকে উদ্ধার করা হয়েছিল কৃষ্ণনগর হোম থেকে। মাঝে মধ্যে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় আবার ফিরে আসে। নার্ভের একটু সমস্যা আছে বলে জানিয়েছেন মেয়েটির বাবা মা। নিউ বারাকপুর থানার পুলিশ জানিয়েছে সোনারপুর চাইল্ড হেল্প লাইন মারফত দিশা নবদিগন্ত হোমে মেয়েটিকে রাখা হয়েছে। শুক্রবার সকালে চম্পাহাটি কার্যালয়ে মেয়েটির পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে জানিয়েছেন সোনারপুর চাইল্ড হেল্প লাইন। মেয়েটির বাবাকে সোনারপুর চাইল্ড কেয়ার হোম থেকে জানিয়েছে মেয়েটিকে হোমে স্বযত্নে রাখা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

eight − seven =