অভিজিৎ হাজরা, হাওড়াঃ- কামড়ালে সহজে বোঝা যায় না। কিন্তু সময়মতো চিকিৎসা শুরু না হলে মৃত্যু অনিবার্য। এবার হাওড়া জেলার শ্যামপুর থানার সরিষানি গ্ৰামের অরিজিৎ ভক্তা নামে এক ব্যক্তির মুগরি (মাছ ধরার যন্ত্র) তে একটি বড় মাপের কালাচ সাপ ধরা পড়ে। এই সাপ দেখে এলাকাবাসী ভয় পেয়ে যায়। তারা সাপটিকে মারতে উদ্যত হয়। এই খবর এলাকার এক শিক্ষক সৌরভ নষ্কর হাওড়া জেলা যৌথ পরিবেশ মঞ্চ – এর এক সদস্য কে ফোন করে জানান।

তিনি বলেন, ‘সাপটি বেশ বড় মাপের’। এই খবর পেয়ে সাপটিকে জনরোষের হাত থেকে বাঁচানোর জন্য রেসকিউ টিমের সদস্যা সংগীতা গিরি ও শিক্ষক সৌরভ নষ্কর ওই এলাকায় যান। ওনারা এলাকায় থাকা মানুষজনকে বলেন সাপটিকে মারবেন না। আমরা এটা বনদপ্তরের হাতে তুলে দিতে চাই। এর পর হাওড়া জেলা যৌথ পরিবেশ মঞ্চ-র সদস্যরা যোগাযোগ করেন বনদপ্তরে।

খবর পেয়ে বনদপ্তরের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছান এবং অতি সত্বর সাপটিকে উদ্ধার করে। সাধারণত এত বড় মাপের কালাচ সাপ দেখা যায় না বলে জানালেন হাওড়া জেলা যৌথ পরিবেশ মঞ্চ -র সম্পাদক শুভ্রদ্বীপ ঘোষ।

তিনি বলেন, এটা আমাদের সংগঠনের কাছে উদ্বেগের বিষয়। তবে গ্ৰামের মানুষ সচেতন হচ্ছে। আমরা গ্ৰামে গ্ৰামে বিভিন্ন পশু-পাখি, প্রাণী, কীট-পতঙ্গ বাঁচানোর জন্য সদস্য-সদস্যা, কিছু শুভানুধ্যায়ীদের ঐকান্তিক সাহায্য-সহযোগিতায় সচেতনতা শিবির করছি। মানুষ সচেতন হচ্ছেন, এটা আমাদের কাছে আশাপ্রদ বিষয়।