Advertisement

সনাতন গরাই, দুর্গাপুর :- দুর্গাপুরে জুড়ে চলছে ছেলেধরা আতঙ্ক। ফরিদপুর, কোকোভেন থানার পর কাঁকসার বিদবিহারের রাউৎডিহি গ্রামে সাতসকালে সন্দেহভাজন একজনকে ঘুরতে দেখে এলাকার মানুষ। তারপর তাকে আটক করে রাখা হয় একটি ক্লাবে। ওই সন্দেহভাজন ব্যক্তির ঝোলাতে একটি নকল বন্দুক ও একটা হাতুড়ি ছিল বলে জানা যায়। তারপর শুরু হয় গণধোলাই। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে মলানদীঘি পুলিশ এসে উদ্ধার করে ক্ষিপ্ত জনতার হাত থেকে। এলাকার মহিলারাদের অভিযোগ, সে নাকি ছেলে ধরতে এসেছিলো।

সন্দেহ ভাজন ওই ব্যক্তি জানায়, জয়দেব থেকে এসেছি । ঘুরে ঘুরে বেড়ায় সেইরকম এখানে আমাকে প্রথমে এলাকার মানুষ ধরে ও পরে মারধর করে। সন্দেহ ভাজন ব্যাক্তির নাম লখিন্দ বাউড়ি। অপরদিকে পুলিশি সূত্র ধরে জানা গেছে, একজন ভবঘুরে ঘোরাঘুরি করছিলো সন্দেহ হওয়ায় মারধর শুরু করে। আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেট সবসময় মানুষের মধ্যে প্রচার করছে। তবুও মানুষ সচেতন হচ্ছে না বলে জানাই পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

nineteen − sixteen =