সনাতন গরাই, দুর্গাপুর :- দুর্গাপুর জুড়ে চলছে একদিকে চুরি ডাকাতি অপরদিকে ভুয়ো আতঙ্ক যার জেরে সর্বশান্ত শিল্পাঞ্চল দুর্গাপুর। এবার জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিয়ে কিছু দুষ্কৃতী রাজবাঁধের একটি হোটেলে প্রবেশ করে। তারপর হোটেলের রিসেপশন থেকে জোর করে রেজিস্টার খাতা নিয়ে নেই। তারপর রুমে রুমে ঢুকে চলে তাণ্ডব।ঘটনার সূত্র ধরে জানা গেছে, সোমবার দুই যুবতী ও এক যুবক অনলাইনে হোটেল বুক করেছিলো।সোমবারই রাত্রিবেলাই ওই যুবক ও যুবতীদের পরতে হলো বিপাকে। রাত্রি ৯টা সময় কিছু মদ্যপ দুষ্কৃতী জয় শ্রী রাম ধ্বনি দিয়ে হোটেলের মধ্যে প্রবেশ করে। তারপর রেজিস্টার খাতা নিয়ে ওই দুষ্কৃতীরা চার তলায় ওই যুবক- যুবতীদের রুমে ঢুকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে ও ভিডিও করতে থাকে। প্রায় আধঘন্টা ধরে চলে এইভাবে তাণ্ডপ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে তড়িঘড়ি আসে কাঁকসা থানার পুলিশ। কাঁকসা থানার পুলিশ ওই যুবক যুবতীদের উদ্ধার করে নিয়ে আসে। হোটেলের মালিক জানান, এই এলাকায় একটা রাজনৈতিক দল টাকার জন্য আমাদের চাপ দিচ্ছিলো, টাকা না দেওয়ায় তারা এইভাবে তাণ্ডব চালালো। হোটেলের মালিক আরও জানান, লোকসভার ভোটের পর থেকে কিছু বিজেপি যুবক টাকা চাইতো, তা না দেওয়াতে মাঝে মাঝে হুমকি দিত।

উদ্ধার হওয়া যুবক জানায় সরকারি নিয়মে হোটেল বুক করেছিলো তারা, তার পরেও এই ভাবে হেনস্থা হতে হলো। মহিলাদের অভিযোগ দুষ্কৃতীরা রুমে ঢুকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে ও ভিডিও করে। ঠিক সময় পুলিশ এসেছিলো তাই রক্ষা হয়ে গেল। হোটেলের মালিক সুব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় কাঁকসা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। পুলিশ সি সি টিভি ফুটেজ দেখে পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখে তদন্ত শুরু করেছে।