অলোক আচার্য, বিরাটীঃ- নিমতা বয়েজ ক্লাবের মাঠে রবিবার গণবিবাহের আয়োজন বসে। কর্মযোগী সোসাইটি সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত গণবিবাহের মঞ্চ থেকে ১২ জন মেয়েকে বিয়ে দেওয়া হয় এদিন। যাঁদের বেশির ভাগই সুন্দরবন প্রত্যন্ত অঞ্চলের গরীব পরিবারের।

এদিনের অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। কন্যা সম্প্রদান করেন কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র। এছাড়া ও উপস্থিত ছিলেন সাংসদ সৌগত রায়, উত্তর দমদমের পুরপ্রধান বিধান বিশ্বাস, সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলারগণ।

বিয়ের উপহার হিসেবে খাট, আলমারি, ড্রেসিং টেবিল, সাইকেল, সেলাই মেশিন, কাঁসার থালাবাসন, মেয়ের জন্য বেনারসী শাড়ি, ছেলের ধুতি পাঞ্জাবি, এবং হাতের সোনা আংটি সংস্থার তরফে দেওয়া হয়। বিয়ে উপলক্ষে পাত্র ও পাত্রী পক্ষ ছাড়া ও এলাকার লোকজন মিলিয়ে তিন হাজার মানুষকে পাত পেড়ে খাওয়ানোর ব্যবস্থা করা হয়েছিল। জানান সংস্থার কর্ণধার তথা উত্তর দমদম পুরসভার ৩০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তপন চক্রবর্তী।

ছিল স্থানীয় ও বহিরাগত নামীদামী শিল্পী সমন্বয়ে সংগীতানুষ্ঠানও। এই গণবিবাহ উপলক্ষে সকালে এক বর্ণাঢ্য সুসজ্জিত শোভাযাত্রা বিভিন্ন এলাকা পরিক্রমা করে। এবছর ১৩ বছরে পা দিল এই গণবিবাহ।