সানওয়ার হোসেন :- মোদী সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের প্রথম বাজেট পেশ হয়েছে। শুক্রবার অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের পেশকৃত বাজেটের কড়া সমালোচনা করলেন লোকসভায় বিরোধী দল কংগ্রেসের নেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী। তার কাছে এই বাজেটের অর্থ পুরোনো বোতলে নতুন মদ ছাড়া আর কিছুই নয়।

বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসা বিজেপির পক্ষে বাজেট পেশ করেছেন প্রথম কেন্দ্রীয় নারী অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। তার উপস্থাপিত এই বাজেট বিরোধী দলগুলোকে খুশি করতে পারেনি। বাজেট পেশের পর অধীররঞ্জন চৌধুরী বলেন, বাজেটে নতুন কিছুই নেই। সেই একই পুরনো প্রতিশ্রুতির পুনরাবৃত্তি।

বাজেটের সমালোচনা করে কংগ্রেস নেতা বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার নতুন ভারতের কথা বলছে অথচ এই বাজেট দেখে মনে হচ্ছে নতুন বোতলে পুরনো মদ। কিছুই নতুন নেই। এমনকি নতুন উদ্যোগ বা কর্মসংস্থানের প্রতিশ্রুতি নিয়েও কিছু বলা হয়নি।

তিনি আরও বলেছেন, বাসন আছে, রেশন নেই। মোদি সরকারের বাজেটকে দিশাহীন বলেই ব্যাখ্যা করেছেন তিনি। এ ছাড়া তিনি এই বাজেটে অর্থমন্ত্রীর ঘোষণা করা ইলেকট্রিক যানবাহনের তীব্র সমালোচনা করেন।

বাজেট পরবর্তী প্রতিক্রিয়ায় অধীররঞ্জন চৌধুরী বলেন, এখন দেশজুড়ে যে যানবাহন চলে তা চালাতে তো নাভিশ্বাস ওঠার জোগাড়। কারণ পেট্রল আর ডিজেলের দাম বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। যখন ইলেকট্রিক যানবাহন আসবে তখন আসবে। সেসব কথা এখন শুনিয়ে লাভ কী? এই বাজেটের মাধ্যমে সরকার নিজের ‘বাজেট’ ঠিক করেছে। এতে দেশের মানুষের উপকার হবে না।

লোকসভার বাইরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, এই বাজেটে তরুণ–তরুণীদের কর্মসংস্থানের কোনও কথা উল্লেখ নেই। মধ্যবিত্তদের সঞ্চয়ে সুদ বাড়ার কোনও কথা নেই। এই বাজেটের ফলে জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাবে। সাধারণ মানুষের বেঁচে থাকা কঠিন হয়ে পড়বে। মানুষের অন্য অনেক সমস্যার মধ্যে এই বাজেট আরও একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়ালো।