সমীর দাস, নদীয়াঃ- আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর ভবানীপুরে উপনির্বাচন। একই দিনে ভোট মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রেও। জল্পনার মধ্যেই শনিবার ৩ কেন্দ্রের ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন। ভোটের ফল ঘোষণা ৩ অক্টোবর। যদিও এখনো পর্যন্ত ঘোষিত হয়নি অন্য চারটি বিধানসভার উপনির্বাচনের তারিখ। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার রাজ্য নেতৃত্ব কপিল তালুকদার এবং তার সহকারীরা বুথস্তরে সংগঠন গড়ে তোলার তাগিদে ছুটে বেড়াচ্ছেন বিভিন্ন বিধানসভায়।

AITCSSMC জেলার সভাপতি সৈকত দাস এর নেতৃত্বে ফুলিয়ার বিদ্যাসাগর মঞ্চে এমনই এক কর্মী সভায় উপস্থিত ছিলেন নদীয়া জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের দুই সাংগঠনিক সভাপতি রত্না ঘোষ এবং জয়ন্ত সাহা, জেলা পরিষদের সভাধিপতি রিক্তা কুন্ডু, মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস শান্তিপুর পৌরসভার প্রশাসক সুব্রত ঘোষ সহ যুব তৃনমূল কংগ্রেসের জেলা কমিটির ৪ জন সম্পাদক, ছাত্রনেতা রাকেশ পাড়ুই, এস সিএস টি সেল, মহিলা, শ্রমিক সংগঠনের নেতৃত্ব। হাজির ছিলেন স্থানীয় পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি এবং জেলা পরিষদের সদস্য গণও। বিজেপির আইটি সেলকে পরাস্ত করতে তৃণমূল কংগ্রেসের সোশ্যাল মিডিয়ার সৈনিকদের প্রস্তুত বলে জানান AITCSSMC সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপ রাজ্য প্রধান এডমিন কপিল তালুকদার।

অন্যদিকে মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস সোশ্যাল মিডিয়ার ভূয়শী প্রশংসা করে বলেন, নেতৃত্ব দাবি না করেই, নিঃশব্দে নিভৃতে দলকে সকলের কাছে তুলে ধরে। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রীও সোশ্যাল মিডিয়া তৃণমূল কর্মীদের অত্যন্ত স্নেহ করেন।

পতাকা উত্তোলন, ক্লাব ব্যান্ড বাজিয়ে নেতৃত্বদের সম্ভাষণ জানানো, নেতৃত্ব স্থানীয়দের সাথেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন কর্মীদের সংবর্ধিত করা, মধ্যহ্নভোজ এবং শান্তিপুর বিধানসভা এলাকায় বুথ অনুযায়ী কমিটি গঠনের মাধ্যমে আজকের অনুষ্ঠান সমাপ্ত হয়। তৃণমূল কংগ্রেসের পুরাতন সৈনিক আজকের অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা সৈকত দাস জানান এভাবেই শান্তিপুর বিধানসভার অন্তর্গত দশটি পঞ্চায়েত এবং একটি মিউনিসিপালিটি এলাকায় কর্মীসভা হবে অতি শীঘ্রই।