অলোক আচার্য, বিরাটীঃ- উত্তর দমদম পুরসভার পুরনো হাসপাতাল ভবনে উদ্বোধন হল ‘মা’ ক্যান্টিনের। পাঁচ টাকায় দুপুরের খাবার পাওয়া যাবে। উত্তর দমদম পুরসভার উদ্যোগে সোমবার দুপুরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য ও সাংসদ সৌগত রায়, উত্তর দমদম পুরসভার মুখ্য প্রশাসক সুবোধ চক্রবর্তী, প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য বিধান বিশ্বাস, লোপামুদ্রা দত্ত চৌধুরী, মহুয়া শীল, দেবাশিস ঘোষ, বাসন্তী দে বিশ্বাস, সুলতানা বানু, কৃষ্ণা দে, রাজর্ষি বসু, স্থানীয় কোঅর্ডিনেটর শেলী হালদার, সমাজসেবী স্বপন হালদার সহ বিশিষ্ট জনেরা।

মূলত করোনা রোগীদের জন্য হলেও প্রতিদিন হাসপাতালে আসা রোগীর পরিবার এবং দুঃস্থ ব্যক্তিদের পাঁচ টাকার বিনিময়ে দুপুরের আহারের ব্যবস্থা থাকবে। মেনুতে থাকবে ভাত, ডাল ও ডিম কিংবা সয়াবিন। উত্তর দমদম পুরসভার মুখ্য প্রশাসক সুবোধ চক্রবর্তী বলেন, প্রতিদিন একশো জনের আহারের ব্যবস্থা থাকবে। সপ্তাহের কুপন দেবার সময় সকাল ৮টা থেকে ৯টা।উত্তর দমদম পুরসভার ছাড়াও অন্য দুটি কাউন্টার হল নিমতা আলিপুর এবং পাঠানপুর মোড়। আগামী দিনে বাড়িয়ে কমপক্ষে ২৫০ মানুষের আহারের ব্যবস্থা করা হবে।

রাজ্যের মানবিক মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঐকান্তিক অনুপ্রেরণায় রাজ্যের শহর ও মফস্বলের দরিদ্র মানুষদের প্রতিদিন সুলভে দ্বিপ্রাহরিক অন্নসংস্থানের লক্ষ্যে মাত্র পাঁচ টাকায় পেট ভরা খাবারের চালু করেছেন তারই অঙ্গ হিসেবে উত্তর দমদমে পুরনো হাসপাতাল ভবনে চালু হল পাঁচ টাকার ডিম ভাত। প্রতিদিন দুপুর ১২ টা থেকে ২টো পর্যন্ত চলবে। করোনা আক্রান্ত রোগী রা যারা বাড়িতে রান্নার অসুবিধা পরিবারের সদস্যরা যোগাযোগ করলে বাড়ি তে ও রান্নার করা খাবার সুলভে পৌছে দেওয়া হবে জানান প্রশাসক। শুধু করোনার বিধিনিষেধ নয় আজীবন এই পরিষেবা চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করব বলেন পুরসভার মুখ্য প্রশাসক।