উচ্চমাধ্যমিকে ৯০% নম্বর পেয়েও দারিদ্রতার কারণে পড়াশোনার পাঠ শিখে উঠতে চলেছে দিনমজুরের মেয়ের

0

সংবাদদাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা :- সুন্দরবনের প্রত্যন্ত এলাকায় পাথর প্রতিমা ব্লকের দিগম্বর পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের গুরুদাসপুর গ্রামের দিনমজুর রবীন্দ্রনাথ পালে ও এিবেনি পালের দুটি মেয়ে। বাড়িতে বাবা মা দাদু দিদা এবং দিদি কে নিয়েই তাদের সংসার ছোট মেয়ে রঞ্জিতা পাল উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় ৪৫১ নম্বর পেলেও তার আক্ষেপ তার হয়তো আর পড়াশোনা হবে না। সে গুরুদাসপুর মহেন্দ্র ইন্দ্র বিদ্যামন্দির থেকে উচ্চ মাধ্যমিক দিয়েছিল। তার সাফল্যে এলাকার মানুষ থেকে শুরু করে স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকারা গর্বিত। সে ইংলিশে অনার্স নিয়ে পড়তে চায় কলেজে। কিন্তু তার বাবা রবীন্দ্রনাথ পাল চায় তার মেয়ে পড়াশোনা না করে টিউশনি পড়িয়ে কিছু রোজগার করুক। কারণ খরচা করে বাইরে রেখে মেয়েকে আর পড়ানো তার সম্ভব নয়। কিন্তু মেয়ে জেদ্ধ ধরেছে সে পড়াশোনা করবে। এখন বাবা মায়ের একটাই চিন্তা কি করে তার মেয়ে লেখাপড়া শিখবে বাইরে থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × four =