বাইজিদ মন্ডল, ডায়মন্ড হারবারঃ- প্রতি বছরের মতো এবছরও অল ইন্ডিয়া মাইনরিটি অ্যাসোসিয়েশন (আইমা) এর সহযোগিতায় ও হটুগঞ্জ আইমা ইউনিটের উদ্যোগে, হটুগঞ্জ আল আমিন মিল্লী মিশন প্রাঙ্গনে ঈদের আগে এলাকার শতাধিক গরীব দুঃস্থ মানুষের মধ্যে নতুন শাড়ি, লুঙ্গি এবং বাচ্চাদের জন্য জামা দেওয়া হ’ল। এমনিতেই সারাবছর আইমা এর পক্ষ থেকে এলাকার বিভিন্ন গরীব দুঃস্থদের বছরে তিনবার নতুন জামা কাপড় বিতরণ করা হয়, দুর্গাপূজা, ঈদের সময় এবং শীতকালে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

এছাড়াও বিগত লকডাউন এর সময় এই (আইমা)র সর্ব ভারতীয় সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রুহুল আমিন এর সহযোগিতায় বিনা পয়সার সবজি হাট করে প্রায় হাজারখানেক মানুষকে বিনা পয়সায় সবজি চাল ডাল বিতরণ করে নজির সৃষ্টি করেছিল। সেই অরাজনৈতিক সংগঠন আইমা এখনও পর্যন্ত তাঁর সেই ধারাকে অব্যাহত রেখে এবারের ঈদের আগে এলাকার প্রায় শতাধিক জন মানুষকে নতুন শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিন ২৪ পরগনা জেলার আইমার নেতৃত্ব কাজী মও: আ: কাদের ফাতেহী, জেলার অবজারভার হাফিজুর রহমান, বিশিষ্ঠ সমাজসেবী কাজী রইসুদ্দিন সাহেব, আল আমিন মিল্লী মিশনের প্রধান শিক্ষক কাজী আ: গাফফার, আইমার একনিষ্ঠ কর্মী আ: মালেক সহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। জেলার আইমার নেতৃত্ব কাজী মও: আ: কাদের ফাতেহী জানান বছরে তিনবার নতুন বস্ত্র প্রদান করা হয় এলাকার দুঃস্থ গরিব মানুষদের। এবারেও সেই আয়োজন করা হয়েছে।

আইমার সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রুহুল আমিন এর সহযোগিতায় এবং এলাকার বিভিন্ন ব্যবসায়ী সাধারণ মানুষ সমাজসেবী প্রত্যেকে আমাদের পাশে থেকে এই প্রচেষ্টাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন তাদেরকে কৃতজ্ঞতা জানাই। পাশাপাশি যতদিন প্রাণ থাকবে ততদিন এই আইমা মানুষের পাশে এভাবেই সেবা প্রদান করে যাবে। আইমার এই উদ্যোগকে কৃতজ্ঞতা ও সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকার বিশিষ্ঠ জনেরা।

বিশিষ্ঠ সমাজসেবী কাজী রইসুদ্দীন তিনি জানান আইমার এই উদ্যোগ প্রশংসনীয় আগামী দিনেও যাতে এই উদ্যোগ অব্যাহত থাকে এই কামনা করি এবং সর্বদা পাশে থাকার আশ্বাস প্রদান করি।