সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- ইয়াসের দাপটে ক্ষতিগ্রস্ত হিঙ্গলগঞ্জের অসহায় মানুষদের কথা মাথায় রেখে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে মঙ্গলবার হিঙ্গলগঞ্জে আসেন তৃণমূলের রাজ্য মহিলা সম্পাদিকা সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্থানীয় বিধায়ক দেবেশ মণ্ডলকে সঙ্গে নিয়ে তিনি দুর্গত মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিলি করেন।

এ দিন দুপুরে সায়ন্তিকা হিঙ্গলগঞ্জের নেবুখালী লঞ্চ ঘাটে থেকে লঞ্চে করে হিঙ্গলগঞ্জ, রূপমারি সহ সুন্দরবনের প্রত্যন্ত এলাকা পরিদর্শন করেন। স্থানীয় বিধায়ক দেবেশ মণ্ডলকে সঙ্গে নিয়ে ত্রাণ শিবিরে যান। শিবিরে থাকা অসহায় মানুষের সাথে কথা বলেন। তাদের সুবিধা অসুবিধার কথা শোনেন। তাদের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। দুর্গত মানুষের হাতে শুকনো খাবার সহ নানা সামগ্রী তুলে দেন। করোনার কথা মাথায় রেখে অসহায় মানুষের হাতে মাস্ক এবং স্যানিটাইজার তুলে দেওয়ার পাশাপাশি করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ করেন। সায়ন্তিকা বলেন, আমি সব সময়ে মানুষের পাশে থেকে কাজ করতে চাই। সেই কাজে দিদি আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন তাতে অভিভূত।

অভিনেত্রী তথা রাজ্য তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখার জন্য সাময়িকভাবে করোনা বিধি নিষেধ সামাজিক দূরত্ব ভেঙে ভিড় জমে ছিল ভালোই। তিনি সাড়ে ৫ শো অসহায় মানুষকে ত্রাণ দেন। রুপমারি বাজারে চিকিৎসা শিবির করা হয়। সেখানে চিকিৎসক পলাশ সাহা অসুস্থদের পরীক্ষা করার পাশাপাশি ওষুধ দেওয়া হয়।

দেবেশ মন্ডল বলেন, এখন আমাদের একমাত্র কাজ বিপদগ্রস্ত মানুষের পাশে থেকে তাদের সাহায্য করা। তাদের খাবারের ব্যবস্থা করা। শিশুদের জন্য দুধের ব্যবস্থা করা।