সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- প্রত্যন্ত সুন্দরবন অঞ্চলের আম্ফান ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের ছেলে মেয়েদের হাতে তুলে দেওয়া হল বই খাতা সহ বিভিন্ন ধরনের শিক্ষণ সামগ্রী ও দরিদ্র অসহায় গরীব মানুষদের দেওয়া হ’ল বিনামূল্যে বিভিন্ন ধরনের ঔষধ।

জানা যায়, প্রত্যন্ত সুন্দরবন অঞ্চলের হিঙ্গলগঞ্জ এর বিভিন্ন এলাকার অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মীরা বর্তমানে কর্মসূত্রে কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় থাকেন। কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় তারা থাকলে তাদের মন পড়ে থাকে তাদের জন্মস্থান হিঙ্গলগঞ্জ। গতবছর প্রবল ঘূর্ণিঝড় আম্ফান গত কয়েকমাস আগে প্রবল ঘূর্ণিঝড় যশের তাণ্ডবে প্রত্যন্ত হিঙ্গলগঞ্জ এর বিভিন্ন জায়গায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পাশাপাশি মহামারী করোনা কবলে পড়ে প্রচুর শ্রমিকরাও কর্মহীন হয়ে এখনো পর্যন্ত বাড়িতে দিন কাটাচ্ছে।

এই সমস্ত নানান সুবিধার কথা মাথায় রেখে ওই সমস্ত অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মীরা গত কয়েকদিন ধরে হিঙ্গলগঞ্জ এর বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে সমীক্ষা করে এই সমস্ত অসহায় পরিবারগুলোকে চিহ্নিত করে তাদের তাদের বাড়ির ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের হাতে তুলে দেওয়া হল বই, খাতা, পেন্সিল সহ বিভিন্ন ধরনের শিক্ষার সামগ্রী । পাশাপাশি এই সমস্ত অসহায় মানুষদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয়। ও তাদের হাতে বিনামূল্যে তুলে দেয়া হয় বিভিন্ন ধরনের ঔষধ পত্র। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন এলাকা থেকে নামি দামি ডাক্তার এনে এই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয় বলে জানা গেছে‌। পাশাপাশি এলাকার হিন্দু ধর্মাবলি মানুষদের হাতে তুলে দেওয়া হয় ধর্মগ্রন্থ গীতা।

এই বিষয়ে সেন্ডেল বিল পঞ্চায়েতের সদস্য সুরজিৎ বর্মন জানান, বিশিষ্ট সমাজসেবী মধুসূদন গায়েন এর উদ্যোগে গ্রামের মানুষদের চিকিৎসা বিনা পয়সায় ওষুধ থেকে শুরু করে ছাত্র-ছাত্রীদের বিনামূল্যে বই খাতা পেন্সিল তুলে দেন এই সমস্ত অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মীরা। এছাড়াও কয়েকশো মানুষের বসিয়ে খাওয়ানোর ব্যবস্থা করেন।