সংবাদদাতা, বসিরহাটঃ- দীর্ঘদিন ধরেই স্কুল বন্ধ থাকায় হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছিল পড়ুয়ারা। যখনই স্কুল খোলার কথা ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। আনন্দ ও উৎসবের মেজাজে স্কুলে পৌঁছালো ছাত্র-ছাত্রীরা। কিন্তু ছোটদের স্কুল না খোলায় মন খারাপ। তাই তাদের মুখে হাসি ফোটাতে কয়েকজন অবসরপ্রাপ্ত সৈনিকদের উদ্যোগে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হল বই, খাতা।

জানা যায়, এদিন দুলদুলি অঞ্চলের বেশকিছু আদিবাসী শিশুদের হাতে পড়ার সরঞ্জাম তুলে দেওয়া হয় অবসরপ্রাপ্ত সৈনিকদের উদ্যোগে।

এই বিষয়ে উদ্যোক্তা মধুসূদন গায়েন জানান, আমরা দীর্ঘদিন ধরেই সুন্দরবন এলাকায় প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঘটলে যতটুকু সম্ভব শুকনো খাবার থেকে রান্না করা খাবার পৌঁছে দিকে ছুটে আসি সুন্দরবনের এই প্রান্তিক এলাকায়। এবং সমাজের কুসংস্কারের বিরুদ্ধে নানান রকম প্রচার চালিয়ে যাচ্ছি, আমরা দীর্ঘদিন ধরেই এই সমস্ত এলাকায়। এছাড়াও মাঝে মধ্যে প্রান্তিক এলাকায় স্বাস্থ্য শিবির করে গরীব দুঃস্থ ব্যক্তিদের বিনা পয়সায় ওষুধ ও স্বাস্থ্য পরিষেবা কলকাতা থেকে ডাক্তারবাবু স্বাস্থ্য শিবিরে চিকিৎসা করানো হচ্ছে ।